বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ট্রাকের ধাক্কায় নিহত অসমের সাংবাদিক, হত্যার অভিযোগ টিভি চ্যানেলের
ট্রাকের ধাক্কায় নিহত অসমের টিভি চ্যানেল সাংবাদিক পরাগ ভুঁইঞার মৃত্যু ঘিরে ঘনাল রহস্য।
ট্রাকের ধাক্কায় নিহত অসমের টিভি চ্যানেল সাংবাদিক পরাগ ভুঁইঞার মৃত্যু ঘিরে ঘনাল রহস্য।

ট্রাকের ধাক্কায় নিহত অসমের সাংবাদিক, হত্যার অভিযোগ টিভি চ্যানেলের

  • চ্যানেলের তরফে অভিযোগ, গোড়ায় তদন্তের বিষয়ে ঢিলেমি দেখায় স্থানীয় পুলিশ। পরে মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোওয়ালের হস্তক্ষেপে ডিজিপি ভাস্কর জ্যোতি মহন্তের চাপে তারা পদক্ষেপ করে।

ছুটন্ত ট্রাকের ধাক্কায় নিহত অসমের টিভি চ্যানেল সাংবাদিকের মৃত্যু ঘিরে ঘনাল রহস্য। হত্যার অভিযোগ তুলল চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।

গত বুধবার রাত ৮.১৫ নাগাদ তিনসুকিয়া জেলায় ১৫ নম্বর জাতীয় সড়কের উপরে নিজের বাড়ির কাছে তীব্র বেগে ছুটে আসা একটি গাড়ির ধাক্কায় মারাত্মক জখম হন প্রতিদিন টাইম চ্যানেলে কর্মরত ৫৩ বছর বয়েসি সাংবাদিক পরাগ ভুঁইঞা। 

কাকোপাথার থানার কাছে এই ঘটনায় গুরুতর জখম পরাগকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাঁকে ডিব্রুগড়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও বৃহস্পতিবার সকালে তিনি মারা যান। 

সাংবাদিক পরাগ ভুঁইঞা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী জগদীশ ভুঁইঞার ভাই। তাঁর মৃত্যুতে এক বিবৃতি প্রকাশ করে প্রতিদিন টাইম চ্যানেলের তরফে অভিযোগ জানানো হয়েছে, গোড়ায় তদন্তের বিষয়ে ঢিলেমি দেখায় স্থানীয় পুলিশ। পরে মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোওয়ালের হস্তক্ষেপে ডিজিপি ভাস্কর জ্যোতি মহন্তের চাপে তারা পদক্ষেপ করে। 

সেই সঙ্গে চ্যানেল কর্তৃপক্ষের দাবি, ‘আমাদের সন্দেহ, বিষয়টি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড এবং আমরা এই মৃত্যুর সবিস্তারে অনুসন্ধান ও নিহতের পরিবার ও প্রতিদিন টাইম-এর জন্য সুবিচার চাই।’

বৃহস্পতিবার অসম পুলিশের তরফে প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছে, অরুণাচল প্রদেশের নামসাই থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে লঘাতক ট্রাকের চালক ও খালাসি জেমস মুরহা ও বাবা বরদলইকে। 

জেরায় গাড়ির চালক দুর্ঘটনার কথা কবুল করে জানিয়েছে, দুমদুমার কাছে বিভিন্ন জায়গা থেকে সংগৃহীত গাছের পাতা নামিয়ে খালি গাড়ি নিয়ে ফেরার পথে অসাবধানতাবশতঃ একজনকে ধাক্কা মারে তার ট্রাক। গণপিটুনির ভয়ে না থেমে তড়িঘড়ি ওই জায়গা ছেড়ে তারা পালায় বলেও জানিয়েছে চালক। 

প্রবীণ সাংবাদিকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাষ করে বার্চতা দিয়ছেন অসমের মুখ্যমন্েত্রী সর্বানন্দ সোনোওয়াল। পাশাপাশি, নিহতের পরিবারের প্রতি তিনি সহানুভূতি প্রদর্শন করেছেন। 

বন্ধ করুন