বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ডাইনি অপবাদ ঘিরে হামলায় আহত ৮! অসমে গ্রেফতার স্কুল প্রিন্সিপাল
 প্রতীকী ছবি (REUTERS) (HT_PRINT)
 প্রতীকী ছবি (REUTERS) (HT_PRINT)

ডাইনি অপবাদ ঘিরে হামলায় আহত ৮! অসমে গ্রেফতার স্কুল প্রিন্সিপাল

  • ঘটনার সূত্রপাত, এলাকার এক বাড়িতে 'ফেদ হিলিং'কে কেন্দ্র করে।যার জেরে পরিস্থিতি ক্রমেই তপ্ত হতে থাকে বলে খবর।

অসমের পশ্চিম করবি আংলং জেলায় ডাইনি অপবাদকে কেন্দ্র করে গ্রাম্য বিবাদ মুহূর্তে সংঘর্ষের চেহারা নেয়। সেখানে ৮ জনকে ডাইনি অপবাদ দিয়ে তাদের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় স্থানীয় এক স্কুলের প্রিন্সিপালকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়াও ৫০ জন গ্রামবাসীকে ঘিরে রেখেছে পুলিশ। এঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে খবর।

ঘটনার সূত্রপাত, এলাকার এক বাড়িতে 'ফেদ হিলিং'কে কেন্দ্র করে। পুলিশের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, অসমের বইথালাংশো পুলিশ স্টেশনের আওতায় থাকা ওই গ্রামে কয়েকটি বাড়িতে এক ধর্মযাজক ফেদ হিলিং বা ধর্মীয় বিশ্বাসের দ্বারা নিরাময়ের কিছু প্রক্রিয়া করতেন। তবে এলাকার বাকি বাড়িতে তিনি যেতেন না। স্থানীয় চার্চের এই যাজকের এমন কর্মকাণ্ডকে ঘিরেই বচসার সূত্রপাত বলে জানিয়েছেন জেলার পুলিশ সুপারিন্টেডেন্ট এ.বাসুমাতারায়। তিনি বলেন, 'কিছু পরিবার ফেদ হিলিং এ বিশ্বাস করে, তবে বাকিরা করে না। বুধবার ধর্ম যাজক একটি পরিবারে ফেদ হিলিং এর কাজ সম্পন্ন করার পর বাকি পরিবারে আর যাননি। এরপর তিনি গ্রাম থেরে বেরিয়ে যান।' এরপরই গ্রামে শুরু হয় সংঘর্ষ একটি গোষ্ঠী অপর গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ডাইনি অপবাদ দিতে শুরু করে। গ্রামের ৮ জনকে এই অপবাদ দেওয়া হয়। এরপরই শুরু হয়ে যায় সংঘাত। ৮ জনের ওপর হামলা চলে বলে অভিযোগ। এদিকে, পুলিশ সূত্রের খবর, গোটা ঘটনার নেপথ্যে রয়েছেন গ্রামের স্থানীয় স্কুলের প্রিন্সিপাল জি মোমিন। তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাশাপাশি গ্রামের ৫০ জনকে ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

অসমের ডাইনি অপবাদ সংক্রান্ত আইনের একাধিক ধারায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়াও ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৪৩, ১৪৭, ৪৪৭,৪২৭,৪৪৮,৩২৬,৩০৭ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অপরাধ মূলক ষড়যন্ত্র, হত্যার চেষ্টা সহ একাধিক অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশের তরফে এ বাসুমাতায় জানিয়েছেন, 'তদন্ত চলছে। যাদের ঘিরে রাখা হয়েছে, তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আরও গ্রেফতারি হতে পারে।'

 

বন্ধ করুন