বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > অসমে তৈরি হবে নয়া বিমানবন্দর, চা বাগানের ২২ শতাংশ জমি লাগবে, শ্রমিকদের কী হবে?
অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা (ANI Photo) (Manash Das  )
অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা (ANI Photo) (Manash Das )

অসমে তৈরি হবে নয়া বিমানবন্দর, চা বাগানের ২২ শতাংশ জমি লাগবে, শ্রমিকদের কী হবে?

  • চা বাগানের জমির একাংশ অধিগ্রহণ করে বিমানবন্দর তৈরি নিয়েও অবশ্য নানা বিতর্ক দানা বাঁধছে।

অসমের কাছার জেলায় আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হবে বলে জানিয়ে দিল সরকার। শুক্রবার অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা জানিয়েছেন কাছারে রাজ্য সরকার নতুন বিমানবন্দর তৈরির উদ্যোগ নিচ্ছে। দলু চা বাগানের প্রায় ৮৭৩ একর জায়গা এজন্য অধিগ্রহণ করা হচ্ছে। সেখানেই তৈরি হবে নতুন বিমানবন্দর।

এদিকে চা বাগানের জমির একাংশ অধিগ্রহণ করে বিমানবন্দর তৈরি নিয়েও অবশ্য নানা বিতর্ক দানা বাঁধছে। তবে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, আমরা চা বাগানের স্বার্থ রক্ষা করতে বদ্ধপরিকর। প্রকৃত কেউ যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হন সেটা দেখা হবে। এদিকে মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার আগেই চা বাগান শ্রমিকদের একাংশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা এভাবে একটা চালু বাগানের জমি অধিগ্রহণ নিয়ে আপত্তি তুলেছেন। চা শ্রমিক ও তাঁদের পরিবারদের কী হবে তা নিয়েও সংশয় দানা বেঁধেছে। 

আন্দোনকারীদের দাবি, চা বাগান জমি মালিকের এটা মানছি। কিন্তু বহু পরিশ্রমের বিনিময়ে সেখানে চা উৎপাদন করেছেন শ্রমিকরা। সেই চা বাগানকে যদি ধ্বংস করে দেয় সরকার, তবে তা খুবই কষ্টের হবে। এদিকে শিলচরের সাংসদ রাজদীপ রায় বলেন,  কোনও শ্রমিক কর্মহীন হবেন না। মাত্র ২২ শতাংশ জমি বিমানবন্দরের জন্য লাগবে। বাগানের প্রায় ৫৫ শতাংশ জমি অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। সেই জমিই বিমানবন্দরের জন্য নেওয়া হবে। 

 

বন্ধ করুন