বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘বিষ’ মদে মোরেনায় মৃত বেড়ে ২০, মাফিয়াদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা, প্রশ্ন কংগ্রেসের
‘বিষ’ মদে মোরেনায় মৃত বেড়ে ২০, মাফিয়াদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা, প্রশ্ন কংগ্রেসের। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
‘বিষ’ মদে মোরেনায় মৃত বেড়ে ২০, মাফিয়াদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা, প্রশ্ন কংগ্রেসের। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

‘বিষ’ মদে মোরেনায় মৃত বেড়ে ২০, মাফিয়াদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা, প্রশ্ন কংগ্রেসের

  • বিষয়টি নিয়ে বুধবার উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।

'বিষ'মদ খেয়ে মধ্যপ্রদেশের মোরেনাতে মৃত্যু হল ২০ জনের। অসুস্থ হয়ে পড়েছেন আরও কয়েকজন। বিষয়টি নিয়ে বুধবার উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে বসেছেন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান।

এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, সোমবার রাতে মোরেনা জেলার মানপুর এবং পাহাওয়ালি গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দা স্থানীয় মদ খান। আশপাশের কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারাও সেই মদ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। যাঁরা গুরুতর অসুস্থ পড়েছিলেন, তাঁদের গোয়ালিয়র হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। সোমবার রাতেই ১০ জনের মৃত্যু হয়েছিল। পরে আরও প্রাণহানির খবর মিলেছে। বুধবার সকাল পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে মোট ২০ জনের। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের অনুমান, সম্ভবত বিষমদ খেয়েই একসঙ্গে এতজন অসুস্থ পড়েন। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্টের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণে বোঝা যাবে বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশ আধিকারিক।

সেই ঘটনায় কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন শিবরাজ। প্রাথমিক তদন্তের পর কর্তব্যে গাফিলতির জন্য মোরেনার জেলা আবগারি আধিকারিককে সাসপেন্ড করে দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে একজন সাব-ইন্সপেক্টর এবং একজন হেড কনস্টেবলকেও সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মধ্যপ্রদেশের পুলিশের ডিআইজি রাজেশ হিঙ্গারকার। ঘটনায় আবগারি আইন এবং ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় মামলা রুজু হয়েছে।

তবে বিষমদের জেরে মধ্যপ্রদেশে মৃত্যুর ঘটনা নতুন নয়। মাসতিনেকের মধ্যে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার এরকম ঘটনা ঘটল। তা নিয়ে বিজেপি সরকারকে আক্রমণ শানিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি কমল নাথ। তিনি অভিযোগ করেন, মুখেই শুধু মাফিয়াদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন শিবরাজ। আদতে কোনও কাজ হয়নি। তার জেরে উজ্জ্বয়িনীতে ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এবার সেই তালিকায় জুড়ল মোরেনা।

বন্ধ করুন