বাড়ি > ঘরে বাইরে > কাশ্মীরে জোড়া এনকাউন্টারে খতম ৮ জঙ্গি, সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে পূর্ণ সেঞ্চুরি
পুলওয়ামা-শোপিয়ানে জোড়া এনকাউন্টার, খতম ৯ জঙ্গি (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএফপি)
পুলওয়ামা-শোপিয়ানে জোড়া এনকাউন্টার, খতম ৯ জঙ্গি (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএফপি)

কাশ্মীরে জোড়া এনকাউন্টারে খতম ৮ জঙ্গি, সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে পূর্ণ সেঞ্চুরি

  • সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে সেঞ্চুরি পূর্ণ ‘টিম কাশ্মীর’-এর।

একইসঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীরের দুই জেলায় দুটি পৃথক এনকাউন্টার। আর তাতে কমপক্ষে আট জঙ্গিকে খতম করল নিরাপত্তা বাহিনী। 

প্রতিরক্ষা আধিকারিককে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, দক্ষিণ কাশ্মীরের শোপিয়ানের মুনাদ এলাকায় কমপক্ষে পাঁচ জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে। এখনও অভিযান চলছে বলে জানিয়েছেন ওই আধিকারিক। সেই অভিযান বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে।

অন্যদিকে, পৃথক একটি এনকাউন্টারে পুলওয়ামা জেলার পাম্পোর এলাকার মীজে তিন সন্ত্রাসবাদীকে নিকেশ করা হয়েছে। এক পুলিশ আধিকারিক সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, ওই এলাকায় জঙ্গিদের গতিবিধির নির্দিষ্ট তথ্য পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে অভিযান শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী। তল্লাশির সময় বাহিনীর উপর গুলি চালায় জঙ্গিরা। পালটা জবাব দেয় নিরাপত্তা বাহিনী।

বৃহস্পতিবার গুলির লড়াইয়ে এক জঙ্গির মৃত্যু হয়। তবে বাকি দু'জন স্থানীয় একটি মসজিদে আশ্রয় নেয়। রাতভর মসজিদটি ঘিরে রাখা হয়। জঙ্গিদের মসজিদের বাইরে নিয়ে আসার জন্য শুক্রবার সকালে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটানো হয়। নিখুঁত পরিকল্পনা মতো বাকি দুই জঙ্গিকেও খতম করে নিরাপত্তা বাহিনী।

পাম্পোরের অভিযানের পর কাশ্মীর পুলিশের আইজি বিজয় কুমার বলেন, ‘ধৈর্য এবং পেশাদারিত্ব কাজে দিয়েছে। কোনও গুলি চালানো হয়নি এবং আইইডি ব্যবহার করা হয়নি। শুধু কাঁদানে গ্যাসের শেস ব্যবহার করা হয়েছে। মসজিদের পবিত্রতা বজায় রাখা হয়েছে। মসজিদের মধ্যে লুকিয়ে থাকা দুই জঙ্গিকেই খতম করা হয়েছে।’ 

পরে কাশ্মীর জোন পুলিশের তরফে একটি টুইটবার্তায় বলা হয়, 'সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে সামনে থেকে সেঞ্চুরি পূরণের জন্য টিম কাশ্মীরকে অভিনন্দন জানিয়েছেন কাশ্মীর পুলিশের আইজি বিজয় কুমার।'

বন্ধ করুন