অস্ট্রেলিয়ার ক্যাঙারু দ্বীপে একটি দগ্ধ কোয়ালা (AFP)
অস্ট্রেলিয়ার ক্যাঙারু দ্বীপে একটি দগ্ধ কোয়ালা (AFP)

'দাবানলে ৪৬,০০০ থেকে কমে কোয়ালার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯,০০০-এ'

  • আগুনে প্রায় অর্ধেক হয়ে গিয়েছে ক্যাঙারুর সংখ্যা।

পরপর কয়েকদিন ভারী বৃষ্টিতে অস্ট্রেলিয়ায় একটু কমেছে দাবানলের তাণ্ডব। আর তার মধ্যেই এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। অস্ট্রেলিয়ার ক্যাঙ্গারু দ্বীপে দাবানলে প্রচুর প্রাণীর মৃত্যুর আশঙ্কা আগেই করা হয়েছিল। এবার মোটামুটি একটা পরিসংখ্যান দিলেন সেই দ্বীপের প্রাণী বিশারদরা। জানিয়েছেন, দাবানলের আগে সেখানে ছিল প্রায় ৪৬,০০০ কোয়ালা। এখন তা কমে হয়েছে ৯,০০০। পরিস্থিতি এমনই যে কোয়ালাকে বিপন্ন প্রাণীর স্বীকৃতি দেওয়ার ভাবনা শুরু করেছে সে দেশের প্রশাসন।

ক্যাঙ্গারু দ্বীপের অস্থায়ী পশু হাসপাতালে রোজই আহত কোয়ালাদের উদ্ধার করে নিয়ে আসছেন স্থানীয়রা। যার মধ্যে বহু প্রাণী বেশ গুরুতরভাবে আহত। ইউক্যালিপটাস গাছের বাসিন্দাদের ফের তাদের বাসস্থানে ফেরাতে দিন রাত এক করে দিচ্ছেন হাসপাতালের চিকিৎসক ও কর্মীরা।

জানালেন, অন্যান্য জায়গা থেকে এখানে হাসপাতালে আহত প্রাণী অনেক কম এসে পৌঁছেছে। কারণ, এখানে আগুন এত দ্রুত ছড়িয়েছে যে পালিয়ে বাঁচতে পারেনি প্রাণীরা। অধিকাংশই জীবন্ত দগ্ধ হয়ে মারা গিয়েছে।

হাসপাতালের এক চিকিৎসক জানিয়েছেন, আগুনে প্রায় অর্ধেক হয়ে গিয়েছে ক্যাঙারুর সংখ্যা। দাবানলের আগে এখানকার জঙ্গলে ৪৬,০০০ কোয়ালা ছিল। এখন মেরে কেটে রয়েছে ৯,০০০টি।

পরিস্থিতি এমনই যে কোয়ালাকে বিপন্ন প্রাণী ঘোষণা করার ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার।

বন্ধ করুন