বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চম্পত রাইয়ের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ, সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ১৮টি ধারায় মামলা!
রামমন্দির নির্মাণের দায়িত্বে থাকা ট্রাস্টের চম্পত রাই (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (HT_PRINT)
রামমন্দির নির্মাণের দায়িত্বে থাকা ট্রাস্টের চম্পত রাই (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (HT_PRINT)

চম্পত রাইয়ের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ, সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ১৮টি ধারায় মামলা!

  • রামমন্দিরের জমি কেনা নিয়ে পরপর বিতর্কিত তথ্য উঠে আসছে।

রামমন্দিরের জমি কেনা নিয়ে পরপর বিতর্কিত তথ্য উঠে আসছে। আর এতে ক্রমেই অস্বস্তিতে পড়ছে শাসক দল বিজেপি সহ রামজন্মভূমি ট্রাস্ট। এই সব অস্বস্তি তৈরি করার নেপথ্যে রয়েছেন সাংবাদিক বীনিত নারায়ণ। তিনি কয়েকদিন আগে চম্পত রাইয়ের ভাইয়ের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ নিয়ে একটি ফেসবুকে পোস্ট করেন। এরপরই সাংবাদিক বীনিত নারাইন ও অন্য দু'জন প্রবাসী ভারতীয় অলকা লাহোটি, রজনীশের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫টি ধারা, আইটি আইনের তিনটি ধারায় মামলা দায়ের করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

এদিকে উত্তরপ্রদেশের পুলিশের আধিকারিক ইতিমধ্যেই জমি কেনার বিতর্ক কাণ্ডে ট্রাস্টের সচিব রাই আর তার ভাইকে ক্লিনচিট দিয়েছেন। তবে মামলা হয়েছে এই সংক্রান্ত অভিযোগ জানানো সাংবাদিকের বিরুদ্ধে। এদিকে চম্পত রাইয়ের ভাই সঞ্জয় বনসলের দাবি, এই অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যে। এটি একটি ষড়যন্ত্র। দেশের কোটি কোটি হিন্দুর ভাবাবেগে আঘাত হানা হয়েছে এই ভুয়ো খবর প্রকাশ করে। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতেই উত্তরপ্রদেশ পুলিশ এফআইআর দায়ের করে বীনিত নারায়ণ, অলকা লাহোটি, রজনীশের বিরুদ্ধে।

উল্লেখ্য, তিনদিন আগে এক ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে বীনিত নারায়ণ দাবি করেন, বিশ্বহিন্দু পরিষদের কার্যকর্তা চম্পত রাই নিজের ভাইকে বিজনোরে ২০ হাজার বর্গমিটারের একটি গোয়াল কিনতে সাহায্য করেছিলেন। এই গোয়ালটির মালিক প্রবাসী ভারতীয় অলকা লাহোটি। ২০১৮ সাল থেকে এই দখলদারদের হাত থেকে গোয়ালটি উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। এমনকি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকেও এ বিষয়ে জানিয়েছিলেন। কিন্তু শেষমেশ হাতছাড়া হয়ে যায় তাঁর জমি। এদিকে রাইয়ের ভাইয়ের দাবি, অলকার নির্দেশেই সেই সাংবাদিক ফেসবুক পোস্টটি করেছেন। সেই অভিযোগ জানিয়েই পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান তিনি।

বন্ধ করুন