বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'টিকা ছাড়া স্কুলে না'- ১২-১৫ বয়সী পড়ুয়াদের টিকা বাধ্যতামূলক করল বাংলাদেশ
'টিকা ছাড়া স্কুলে না' ১২-১৫ বয়সী পড়ুয়াদের টিকা বাধ্যতামূলক করল বাংলাদেশ। প্রতীকী ছবি।
'টিকা ছাড়া স্কুলে না' ১২-১৫ বয়সী পড়ুয়াদের টিকা বাধ্যতামূলক করল বাংলাদেশ। প্রতীকী ছবি।

'টিকা ছাড়া স্কুলে না'- ১২-১৫ বয়সী পড়ুয়াদের টিকা বাধ্যতামূলক করল বাংলাদেশ

  • ওই বয়সী পড়ুয়াদের টিকার অন্তত একটি ডোজ ছাড়া স্কুলে যাওয়া যাবে না বলে বাংলাদেশের মন্ত্রী সভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

ভারতে করোনার সংক্রমণ প্রতিদিনই ঊর্ধ্বমুখী। করোনার বাড়বাড়ন্ত শুরু হয়েছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র বাংলাদেশেও। ইতিমধ্যেই সেখানে কোভিড ঠেকাতে একগুচ্ছ ব্যবস্থা নিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। এবার স্কুল পড়ুয়াদের টিকার ওপর জোর দিল বাংলাদেশ। বিশেষ করে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সের স্কুল পড়ুয়াদের করোনা টিকা বাধ্যতামূলক করল সেদেশের সরকার। ওই বয়সী পড়ুয়াদের টিকার অন্তত একটি ডোজ ছাড়া স্কুলে যাওয়া যাবে না বলে বাংলাদেশের মন্ত্রী সভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর মন্ত্রিপরিষদের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেছেন, 'গত ৩ জানুয়ারি এনিয়ে আলোচনা হয়েছিল। তবে আজ বৃহস্পতিবার মন্ত্রী সভার বৈঠকে এবিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রীও এই বৈঠকে ছিলেন। বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রীকে এ বিষয়ে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রীও সেই মত দফতরে নির্দেশ দিয়েছেন।'

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের কোভিড টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে গত বছর থেকে। এই মাসে আরও বেশি সংখ্যায় ওই বয়সী পড়ুয়াদের কোভিড টিকা দেওয়ার তোড়জোড় শুরু করেছে বাংলাদেশ সরকার। তবে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী পড়ুয়াদের জন্যই এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের ক্ষেত্রে এই নির্দেশ দেওয়া হয়নি বলে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম স্পষ্ট করেছেন।

উল্লেখ্য, সাড়ে ১৩ কোটির বেশি মানুষকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের। যার মধ্যে এখনও পর্যন্ত ৫৪.৯ শতাংশ মানুষকে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়ার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন প্রায় পেয়েছেন ৩৮.৭৬ শতাংশ মানুষ। খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন, ' টিকার দুটি ডোজ রেস্টুরেন্টে, বিমান পরিবহনের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। প্রয়োজনে পরিবহনে যাত্রী সংখ্যা অর্ধেক করা হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

বন্ধ করুন