বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘বাংলাদেশে এক বছরে হামলা হয়েছে ১২৮টি মন্দিরে, ভাঙচুর হয়েছে ৪৮১টি প্রতিমা’

‘বাংলাদেশে এক বছরে হামলা হয়েছে ১২৮টি মন্দিরে, ভাঙচুর হয়েছে ৪৮১টি প্রতিমা’

গত ২৩ জানুয়ারি বাংলাদেশের নেত্রকোণায় সরস্বতী মূর্তি ভাঙচুর হয়।

বাংলাদেশের সংবাদ প্রকাশনা সংস্থা প্রথম আলোর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গত শুক্রবার এক সাংবাদিক বৈঠক করে জাতীয় হিন্দু মহাজোট। সেখানে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, গত ১ বছরে বাংলাদেশে ১৫৪ জন সংখ্যালঘু খুন হয়েছেন।

বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের ভয়াবহ ছবি তুলে ধরল সেদেশে হিন্দুদের সব থেকে বড় সংগঠন জাতীয় হিন্দু মহাজোট। সম্প্রতি এক সাংবাদিক বৈঠকে সেদেশে হিন্দু অন্যান্য সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের পরিসংখ্যান তুলে ধরেছেন সংগঠনের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক। তিনি জানিয়েছেন, ৩১ ডিসেম্বর শেষ হওয়া বছরে সেদেশে খুন হয়েছেন ১৫৪ জন সংখ্যালঘু। দখল হয়েছে সংখ্যালঘুদের প্রায় ৯০ হাজার একর জমি।

বাংলাদেশের সংবাদ প্রকাশনা সংস্থা প্রথম আলোর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, গত শুক্রবার এক সাংবাদিক বৈঠক করে জাতীয় হিন্দু মহাজোট। সেখানে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, গত ১ বছরে বাংলাদেশে ১৫৪ জন সংখ্যালঘু খুন হয়েছেন। ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ৩৯ জন। তার মধ্যে ২৭ জনকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। ১৪ জনকে ধর্ষণের পর খুন করা হয়েছে। ৫৫ জনকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। হুমকি দেওয়া হয়েছে ৮৪৯ জনকে। হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে ৪২৪ জনকে। হামলার জেরে আহত হয়েছেন মোট ৩৬০ জন সংখ্যালঘু। এখনো ৬২ জন সংখ্যালঘুর কোনও খোঁজ নেই।

এছাড়া ১ বছরে পদ্মাপাড়ে সংখ্যালঘুদের ৯০ হাজার একর জমি দখল হয়ে গিয়েছে। বসত থেকে উচ্ছেদ করা হয়েছে ৫৭২টি পরিবারকে। তার মধ্যে ৪৪৫টি পরিবার দেশ ছাড়তে বাধ্য হয়েছে। সব মিলিয়ে ২০২২ সালে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের মোট প্রায় ২২১ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। এর মধ্যে ২৭ কোটি ৫০ কোটি টাকা দিতে হয়েছে চাঁদা হিসাবে।

এছাড়া সেদেশে গত বছর ৩১৯টি সংখ্যালঘু পরিবার বা সংখ্যালঘুদের মন্দির লুঠ হয়েছে। ৮১৯টি বসতবাড়িতে হামলা হয়েছে। অগ্নি সংযোগ হয়েছে ৫১৯টি বাড়িতে। সংখ্যালঘুদের ১৭৩টি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে ভাঙচুর হয়েছে।

দেশ ছাড়তে বাধ্য করা হয়েছে ৪৪৫টি সংখ্যালঘু পরিবারকে। ১৫ হাজার ১১৫টি পরিবারকে দেশ ছেড়ে যাওয়ার জন্য হুমকি দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছেন ১ লক্ষ ৯৫ হাজার ৯৯১টি পরিবার। ১ বছরে বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর মোট ৯৫৩টি সংগঠিত হামলা হয়েছে। ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ হয়েছে ১২৮টি মন্দিরে। ভাঙচুর হয়েছে ৪৮১টি প্রতিমা। ৭২টি মন্দিরে চুরির ঘটনা ঘটেছে।

এছাড়া সেদেশে অপহরণ করা হয়েছে ১২৭ জন সংখ্যালঘুকে। ১৫২ জনকে ধর্মান্তরিত করা হয়েছে। ৪০ জনকে ধর্মান্তরিত করার চেষ্টা করা হয়েছে।

গোবিন্দ চন্দ্র বাবু জানিয়েছেন, গোটা দেশে সংগঠনের সদস্যদের থেকে পাওয়া তথ্য যাচাই করে এই পরিসংখ্যান তৈরি করা হয়েছে।

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

বন্ধ করুন