বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Rohingya issue at UN: 'বিপদে পড়বে বাংলাদেশ', রোহিঙ্গা ইস্যুতে রাষ্ট্রসংঘের সাহায্য চেয়ে কী বললেন শেখ হাসিনা?

Rohingya issue at UN: 'বিপদে পড়বে বাংলাদেশ', রোহিঙ্গা ইস্যুতে রাষ্ট্রসংঘের সাহায্য চেয়ে কী বললেন শেখ হাসিনা?

রাষ্ট্রসংঘে কী বললেন শেখ হাসিনা? AP/PTI (AP)

রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভার ৭৭ তম অধিবেশনে যোগ দেন শেখ হাসিনা। শুক্রবারের এই সমারোহে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন রোহিঙ্গারা। এরফলে দেশের অর্থনৈতিক, নিরাপত্তা, সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে ভয়ংকর সমস্যা দেখা দিয়েছে।' শেখ হাসিনা অভিযোগ করেন যে, রোহিঙ্গা সমস্যার হাত ধরে 'মৌলবাদের দিকে ইন্ধন' মিলছে।

রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভার অধিবেশনে রোহিঙ্গা ইস্যুতে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি জানান, বাংলাদেশের নিরাপত্তার জন্য বড়সড় চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠছেন রোহিঙ্গারা। তিনি রাষ্ট্রসংঘের মঞ্চে বলেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত দিক থেকে ভয়ানক ক্ষতি করেছে রোহিঙ্গারা। এই সমস্যার সমাধানে রাষ্ট্রসংঘের সাহায্য চাইলেন তিনি।

রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভার ৭৭ তম অধিবেশনে যোগ দেন শেখ হাসিনা। শুক্রবারের এই সমারোহে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন রোহিঙ্গারা। এরফলে দেশের অর্থনৈতিক, নিরাপত্তা, সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে ভয়ংকর সমস্যা দেখা দিয়েছে।' শেখ হাসিনা অভিযোগ করেন যে, রোহিঙ্গা সমস্যার হাত ধরে 'মৌলবাদের দিকে ইন্ধন' মিলছে। এছাড়াও তাঁর দাবি, 'শুধু বাংলাদেশ নয়, আশপাশের এলাকার নিরাপত্তা ও স্থিতাবস্থা বিঘ্নিত হচ্ছে। রোহিঙ্গাদের ফেরত না পাঠালে বাংলাদেশের বিপদ বাড়বে।' এছাড়াও শেখ হাসিনার বক্তব্যে উঠে আসে মায়ানমারের প্রসঙ্গ। তিনি বলেন, মায়ানমারে রাজনৈতিক সংঘাত ও রাজনৈতিক অস্থিরতার ফলে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোও মুশকিল হয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের জন্য। পড়ুন অন্যরকমের খবর-দুর্গাপুজোর মধ্যে এই দিনটি থেকেই চাকরি, ব্যবসায় উন্নতি কিছু রাশির!ফিরবে ভাগ্য?

বাংলাদেশের সেনাবাহিনীর সঙ্গে ফের একবার মায়ানমারের বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সংঘাত শুরু হয়েছে। গোলা বর্ষণ অব্যহত রয়েছে সীমান্ত জুড়ে। বিষয়টি নিয়ে বারবার মায়ানমারের সঙ্গে আলোচনায় বসেছে বাংলাদেশ। তবে ফলাফল যে কিছুই মেলেনি, তা বলাই বাহুল্য। বাংলাদেশের সঙ্গে মায়ানমারের সীমান্ত দিয়ে বহু রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টা করছে বলেও খবর। তারই মাঝে সীমান্তের এই সংঘাত রীতিমতো উত্তেজনা তুঙ্গে। এশিয়ার বুকে রোহিঙ্গাদের ঘিরে ক্রমেই কূটনৈতিক পরিস্থিতি ভয়াবহ দিকে যাচ্ছে। ফলে এই বিষয়ে শেখ হাসিনার বার্তার পর মায়ানমার সেনা কোনপথে হাঁটে সেদিকে সকলের নজর।

বন্ধ করুন