বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দশমীতেও বাংলাদেশের মন্দিরে চলল তাণ্ডবলীলা, নোয়াখালিতে হামলা ইসকন মন্দিরে
ছবি সৌজন্যে টুইটার/ইসকন
ছবি সৌজন্যে টুইটার/ইসকন

দশমীতেও বাংলাদেশের মন্দিরে চলল তাণ্ডবলীলা, নোয়াখালিতে হামলা ইসকন মন্দিরে

  • বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় মন্দির-মণ্ডপে হামলার প্রতিবাদে আজ চট্টগ্রামে আধাবেলা হরতালের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ।

দশমীর দিন ফের বাংলাদেশের মন্দিরে হামলা চালানোর ঘটনা ঘটল বলে জানা গিয়েছে। বাংলাদেশের নোয়াখালিতে অবস্থিত ইসকনের একটি মন্দিরে দুষ্কৃতীদের তাণ্ডবের অভিযোগ ওঠে শুক্রবার। মন্দিরে কিছু জিনিসে আগুন লাগানোর অভিযোগ করা হয় ইসকনের তরফে। মন্দিরে উপস্থিত ভক্তদের মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ করেন ইসকন মুখপাত্র।

জানা গিয়েছে, নোয়াখালির চৌমুহনীতে প্রায় ৫০০ জন দুষ্কৃতী মন্দিরে হামলা চালায়। হামলার নেতৃত্বে নাকি ছিলেন সেদেশের ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলিগেরই নেতা। হামলায় একজনের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে বলে জানা গিয়েছে। মৃতের নাম জতন কুমার সাহা। এদিকে বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় মন্দির-মণ্ডপে হামলার প্রতিবাদে আজ চট্টগ্রামে আধাবেলা হরতালের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ।

এদিকে ঘটনার পর ইসকনের তরফে টুইট করে লেখা হয়, 'বাংলাদেশের নোয়াখালিতে ইসকন মন্দির ও ভক্তদের উপর আজ একটি হিংস্র হামলা হয়েছে। এই হামলায় মন্দিরের উল্লেখযোগ্য ক্ষতি হয়েছে এবং একজন ভক্তের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আমরা সকল হিন্দুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।'

এর আগেও অষ্টমীর দিন কুমিল্লার বহু পুজোমণ্ডপ, মন্দির ও প্রতিমা ভাঙচুর এবং আগুন লাগানোর ঘটনা হয়েছিল। এরপরই বাংলাদেশের ২২ জেলায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়। এদিকে কুমিল্লার ঘটনায় এপর্যন্ত ৪৩ জনকে আটক করা হয়েছে। কুমিল্লার পর চাঁদপুর, গাজীপুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, কুড়িগ্রাম, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে মন্দির ও মণ্ডপে হামলা এবং প্রতিমা ভাঙচুরের খবর পাওয়া যায়। এর আগেও সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ এবং পুলিশের গুলিতে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

 

বন্ধ করুন