ফাইল ছবি  (REUTERS)
ফাইল ছবি (REUTERS)

ব্যাঙ্ক ধর্মঘটে দুর্ভোগ, মাসের শেষে ক্লিয়ার হল না ৩১ লক্ষ চেক

মাইনে বাড়ানোর দাবিতে দুইদিনের ব্যাঙ্ক ধর্মঘট চলছে।

ব্যাঙ্ক ধর্মঘটে পুরোপুরি বিপর্যস্ত পরিষেবা। অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জানিয়েছেন যে মুম্বই, দিল্লি ও চেন্নাইয়ে ৩১ লক্ষ চেক ক্লিয়ার হয়নি। গ্রাহকদের প্রায় ২৩ হাজার কোটি টাকা ধর্মঘটের জন্য ফেঁসে থাকবে। দুইদিনের ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ফলে ফের সোমবারই চেক ক্লিয়ার হবে।

ন'টি ব্যাঙ্ককর্মী সংগঠনের যৌথ মঞ্চ ইউনাইটেড ফোরাম অব ব্যাঙ্ক ইউনিয়ন মাইনে বাড়ানো, পাঁচদিনের কাজের সপ্তাহ সহ বিভিন্ন দাবিতে বন্ধ ডেকেছে। প্রাথমিক রিপোর্ট অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের প্রায় সব রাজ্যেই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের পরিষেবা বিপর্যস্ত। বেসরকারি ব্যাংকে যদিও এর প্রভাব পড়েনি।

২০১৭ সালের নভেম্বরের থেকে বেতন বৃদ্ধির অপেক্ষায় রয়েছেন হাজার হাজার ব্যাঙ্ককর্মী।শুক্রবার সংসদে অর্থনৈতিক সমীক্ষা পেশ করা হবে। পরদিন বাজেট পেশ করবেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। সেজন্য খোলা থাকবে শেয়ার বাজারও। দেশের অর্খনীতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই দুই দিনে ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের মাধ্যমে কড়া বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করছেন কর্মীরা।

ম্যানেজমেন্ট ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কস অ্যাসোসিয়েশন (আইবিএ) যদিও জানিয়ে দিয়েছে যে কোনও ভাবেই পাঁচ দিনের সপ্তাহ করা হবে না। একই সঙ্গে কুড়ি শতাংশ মাইনে বাড়ানোর প্রস্তাবও মানতে নারাজ তারা। বৃহস্পতিবার রফাসূত্র বার করানোর জন্য বৈঠক করা হয়। কিন্তু কোনও সমঝোতার পথ মেলেনি।

সবমিলিয়ে মোট দশ লক্ষ ব্যাঙ্ক কর্মী দুইদিনের ধর্মঘটে সামিল হয়েছেন।









বন্ধ করুন