বাড়ি > ঘরে বাইরে > তথ্য দেয়নি, তাই পরিযায়ী শ্রমিকদের কর্মসংস্থান প্রকল্পে নেই বাংলা : কেন্দ্র
আবারও কি সংঘাতে জড়াবে কেন্দ্র-রাজ্য?
আবারও কি সংঘাতে জড়াবে কেন্দ্র-রাজ্য?

তথ্য দেয়নি, তাই পরিযায়ী শ্রমিকদের কর্মসংস্থান প্রকল্পে নেই বাংলা : কেন্দ্র

  • এই প্রকল্পের জন্য মোট ৫০,০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হবে।

আবারও দেওয়া হয়নি তথ্য। তার জেরে পরিযায়ী শ্রমিকদের কর্মসংস্থান প্রকল্পে ঠাঁই পেল না পশ্চিমবঙ্গ। এমনটাই দাবি কেন্দ্রের।

লকডাউনের জেরে ভিটেয় ফিরে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের জন্য 'গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান' চালু করতে চলেছে কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানান, নয়া প্রকল্পের জন্য ছ'টি রাজ্যের (বিহার, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, ঝাড়খণ্ড এবং ওড়িশা) ১১৬ টি জেলাকে চিহ্নিত করা হয়েছে। ওই রাজ্যগুলিতে সর্বাধিক পরিযায়ী শ্রমিকরা ফিরেছেন। ওই জেলাগুলিতে দুই-তৃতীয়াংশ শ্রমিক ফিরেছেন বলে হিসেবে কেন্দ্রের।

অথচ পশ্চিমবঙ্গে তো কম পরিযায়ী শ্রমিক ফেরেননি। গত ৫ জুন সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য জানিয়েছিল, আট লাখ শ্রমিক ফিরেছেন। তারপরও পশ্চিমবঙ্গকে কেন তালিকায় রাখা হয়নি, সেই প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন সচিব এন এন সিনহা জানান, যখন প্রকল্পটি তৈরি করা হয়েছিল, তখন বাংলার তরফে পরিযায়ী শ্রমিক সংক্রান্ত তথ্য দেওয়া হয়নি। যদিও কতদিন আগে সেই প্রকল্পের সে বিষয়ে কিছু বলেননি কেন্দ্র। 

তবে আগামিদিনে এই প্রকল্পে যে কোনও জেলা যোগ দিতে পারে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন সচিব। তিনি বলেন, ‘এই উদ্যোগে অন্য জেলার (কমপক্ষে ২৫,০০০ পরিযায়ী শ্রমিক থাকতে হবে) যোগদানের ক্ষেত্রে কোনও বাধা নেই। আমরা যদি পরিসংখ্যান পাই, তাহলে আমরা নিশ্চয়ই ভবিষ্যতে ওদের (পশ্চিমবঙ্গ) যুক্ত করব।’

কেন্দ্র জানিয়েছে, পরিযায়ী শ্রমিকদের ২৫ টি ভিন্ন ধরনের কাজে নিয়োগ করা হবে। একইসঙ্গে গ্রামীণ এলাকায় পরিকাঠামো তৈরি হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। ১২৫ দিনের এই প্রকল্পের জন্য মোট ৫০,০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হবে। আগামী শনিবার (২০ জুন) বিহারের খাগাড়িয়া জেলার বেলাদুর ব্লকের তেলিহার গ্রামে প্রকল্পের সূচনা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যে রাজ্যে বছরের শেষের দিকে বিধানসভা নির্বাচন আছে।

]

বন্ধ করুন