বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জিডিপি বৃদ্ধির হারে রেকর্ড গড়ল বাংলা, বিজেপি শাসিত রাজ্যকে পিছনে ফেলল
জিডিপি বৃদ্ধিতে তামিলনাড়ুর পর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বাংলা। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
জিডিপি বৃদ্ধিতে তামিলনাড়ুর পর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বাংলা। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

জিডিপি বৃদ্ধির হারে রেকর্ড গড়ল বাংলা, বিজেপি শাসিত রাজ্যকে পিছনে ফেলল

  • আর এই কথা আজ জানিয়েছে, স্বয়ং নরেন্দ্র মোদীর তৈরি করা সংস্থা নীতি আয়োগ।

বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ থেকে শুরু করে বর্তমান রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার— প্রত্যেকেরই দাবি এই রাজ্য ঠিক পথে চলছে না। অর্থনৈতিক গতি নেই। উন্নয়ন হচ্ছে না। সব থেমে গিয়েছে। সেখানে করোনা আক্রান্ত রাজ্যগুলির মধ্যে জিডিপি বৃদ্ধিতে তামিলনাড়ুর পর দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বাংলা। আর এই কথা আজ জানিয়েছে, স্বয়ং নরেন্দ্র মোদীর তৈরি করা সংস্থা নীতি আয়োগ। সুতরাং বিজেপির নেতাদের কথা কার্যত তামাশায় পরিণত হল বলে মনে করা হচ্ছে। এই রিপোর্ট আবার টুইটে তুলে ধরেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’‌ব্রায়েন।

নীতি আয়োগের পেশ করা নথি অনুযায়ী, ২০২০–২১ অর্থবর্ষে ১০ লক্ষ কোটি টাকার বেশি অর্থনীতির রাজ্যগুলির মধ্যে জিডিপি বৃদ্ধির নিরিখে দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে বাংলা। জিডিপি বৃদ্ধির নিরিখে বিজেপি শাসিত গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ এবং কর্ণাটকের মতো তথাকথিত সমৃদ্ধ রাজ্যগুলিকেও টেক্কা দিল বাংলা। জিডিপি বৃদ্ধির নিরিখে বাংলার এই রেকর্ডে ও আর্থিক শ্রীবৃদ্ধি নিয়ে প্রশংসা করেছেন কেন্দ্রের নীতি আয়োগ প্রধান অমিতাভ কান্ত।

আরবিআই সূত্রে খবর, এখন দেশে ১০ লক্ষ কোটি বা তাঁর বেশি জিএসডিপি যুক্ত রাজ্যের সংখ্যা সাতটি। সেগুলি হল মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ, কর্ণাটক, বাংলা এবং রাজস্থান। তার মধ্যে ২০২০–২১ শুধু তামিলনাড়ু এবং বাংলারই জিডিপির বৃদ্ধি পেয়েছে। বাকি রাজ্যগুলির জিডিপি কমেছে। গত অর্থবর্ষে তামিলনাড়ুর জিডিপি বেড়েছে ২ শতাংশের কিছু বেশি হারে। আর বাংলার জিডিপি বেড়েছে ১.২ শতাংশ হারে।

পরিসংখ্যান বলছে, ২০২০–২১ সালে সমস্ত পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যের মধ্যে বাংলায় সর্বোচ্চ জিএসডিপি ছিল ১৩.৭ লক্ষ কোটি। নীতি আয়োগের সিইও অমিতাভ কান্ত বলেন, ‘‌বাংলা, বিহার, ত্রিপুরা, সিকিমের মতো হাতে গোনা কয়েকটি রাজ্য ২০২০–২১ অর্থবর্ষে জিডিপি বাড়াতে পেরেছে। গোটা পূর্ব ভারতের মধ্যে বাংলার স্টেট জিডিপিই সর্বোচ্চ। আর যে হারে বেড়েছে তা অবশ্যই প্রশংসনীয়।’‌ এই বিষয়ে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র বলেন, ‘‌কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদীর সরকারের এটাই স্পষ্ট স্বীকারোক্তি যে বাংলা অর্থনীতির বিকাশে যা যা পদক্ষেপ করেছে সেগুলি কার্যকরী। বাংলা যেভাবে মানুষের হাতে অর্থ তুলে দিয়েছে সেটাই অর্থনীতিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সঠিক পদ্ধতি। জাতীয় স্তরে যেখানে জিডিপি বিরাট হারে কমেছে, সেখানে বাংলার সার্বিক বৃদ্ধির হার ১.২ শতাংশ। এটাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সাফল্য প্রমাণ করে।’‌

বন্ধ করুন