বাড়ি > ঘরে বাইরে > উত্তাল কেরালা, মাফিয়া ডনের সঙ্গে বাম নেতার ছেলের ঘনিষ্ঠ যোগের অভিযোগ
নার্কোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর জেরায় বেঙ্গালুরুর মাদক চক্রের মাথা অনুপ মহম্মদ তাঁর সঙ্গে সিপিএম রাজ্য সম্পাদক কোডিয়েরি বালাকৃষ্ণনের ছোট ছেলে বিনীশ কোডিয়েরির ঘনিষ্ঠ যোগের কথা কবুল করে।
নার্কোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর জেরায় বেঙ্গালুরুর মাদক চক্রের মাথা অনুপ মহম্মদ তাঁর সঙ্গে সিপিএম রাজ্য সম্পাদক কোডিয়েরি বালাকৃষ্ণনের ছোট ছেলে বিনীশ কোডিয়েরির ঘনিষ্ঠ যোগের কথা কবুল করে।

উত্তাল কেরালা, মাফিয়া ডনের সঙ্গে বাম নেতার ছেলের ঘনিষ্ঠ যোগের অভিযোগ

  • ইয়ুথ লিগ-এর সাধারণ সম্পাদক পি কে ফিরোজের দাবি, বিনীশ কোডিয়েরি আসলে অনুপের মাদক পাচার ব্যবসার অংশীদার।

সোনা পাচারকাণ্ড নিয়ে কোণঠাসা কেরালা সিপিএম-এর নাম এবার জড়াল মাদক চক্রের সঙ্গেও। নার্কোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর জেরায় বেঙ্গালুরুর মাদক চক্রের মাথা অনুপ মহম্মদ তাঁর সঙ্গে সিপিএম রাজ্য সম্পাদক কোডিয়েরি বালাকৃষ্ণনের ছোট ছেলে বিনীশ কোডিয়েরির ঘনিষ্ঠ যোগ এবং তাঁর দ্বারা উপকৃত হওয়ার কথা কবুল করে বলে বিরোধীদের অভিযোগ। সেই বিবৃতি সংবাদমাধ্যমে ফাঁস হওয়ার পরে চরম অস্বস্তিতে রাজ্যের বাম সরকার।

অনুপের বিবৃতির খুঁটিনাটি প্রকাশ করে মুসলিম লিগ-এর যুব সংগঠন ইয়ুথ লিগ-এর সাধারণ সম্পাদক পি কে ফিরোজ দাবি করেছেন, বিনীশ কোডিয়েরি আসলে অনুপের মাদক পাচার ব্যবসার অংশীদার। লকডাউনের মধ্যে কোট্টায়মে অনুষ্ঠিত পার্টি-সহ মাদক চক্র আয়োজিত একাধিক রেভ পার্টিতে তিনি প্রায়ই অংশগ্রহণ করে থাকেন। 

ফিরোজের অভিযোগ, ‘অনুপ জেরায় জানিয়েছে, জুনিয়র কোডিয়েরি তাঁর প্রিয়তম বন্ধু এবং ব্যবসায় অংশীদার। গত ১৯ জুন কোট্টায়মের রেভ পার্টিতেও তিনি যোগ দিয়েছিলেন। ওই পার্টিতে বেশ কিছু মালয়ালম সিনেমার অভিনেতাও অংশগ্রহণ করেছিলেন।’

শুধু তাই নয়, মাদক চক্রের সঙ্গে সোনা পাচার চক্রের যোগসাজশ আছে বলেও সন্দেহ প্রকাশ করেছেন ফিরোজ। 

গোয়েন্দাদের জেরার মুখে অবশ্য ইতিমধ্যে বিনীশও স্বীকার করেছেন অনুপ মহম্মদের সঙ্গে তাঁর পরিচয়ের কথা। তাঁর ব্যবসায় যে তিনি বিনিয়োগ করেছেন, তা-ও মেনে নিয়েছেন তিনি। তবে তাঁর দাবি, অনুপের মাদক ব্যবসার কথা জানতেন না।

এ দিকে, বিনীশ কোডিয়েরির সঙ্গে মাফিয়া যোগের বিষয়টি কী ভাবে ব্যাখ্যা করা হচ্ছে, তা জানতে শাসকদল সিপিএম-কে সরাসরিকাঠগড়ায় তুলেছে বিরোধী কংগ্রেস ও বিজেপি। 

বন্ধ করুন