বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Bhagwant Mann Controversy: ‘ভগবন্ত মান এতটাই মাতাল ছিলেন যে তাঁকে বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়’, বিস্ফোরক দাবি সুখবীরের
পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান (HT_PRINT)

Bhagwant Mann Controversy: ‘ভগবন্ত মান এতটাই মাতাল ছিলেন যে তাঁকে বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়’, বিস্ফোরক দাবি সুখবীরের

  • চাঞ্চল্যকর এক অভিযোগ করলেন শিরোমণি অকালি দলের প্রধান সুখবীর সিং বাদল। তিনি দাবি করেন, জার্মানি থেকে ফেরার পথে লুফৎহানসা এয়ারলাইন্সের বিমান থেকে নেমে যেতে হয়েছিল ভগবন্তকে। সুখবীরের অভিযোগ, ভগবন্ত অত্যাধিক মাতাল থাকার কারণে তাঁকে বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

সম্প্রতি আটদিনের জার্মানি সফরে গিয়েছিলেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান। রাজ্যের জন্য বিনিয়োগ আনতেই এই সফরে গিয়েছিলেন তিনি। তবে এই সফর ঘিরে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। এই নিয়ে এবার চাঞ্চল্যকর এক অভিযোগ করলেন শিরোমণি অকালি দলের প্রধান সুখবীর সিং বাদল। তিনি দাবি করেন, জার্মানি থেকে ফেরার পথে লুফৎহানসা এয়ারলাইন্সের বিমান থেকে নেমে যেতে হয়েছিল ভগবন্তকে। সুখবীরের অভিযোগ, ভগবন্ত অত্যাধিক মাতাল থাকার কারণে তাঁকে বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়েছিল।

টুইট করে সুখবীর সিং বাদল টুইট করে লেখেন, ‘একটি বিরক্তিকর ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে। সহ-যাত্রীদের উদ্ধৃত করে মিডিয়া রিপোর্টে বলা হয়েছে যে পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মানকে লুফৎহানসা ফ্লাইট থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়েছিল কারণ তিনি এতটাই মাতাল ছিলেন যে হাঁটতেও পারছিলেন না। এর জেরে উড়ানটি ৪ ঘণ্টা বিলম্বিত হয়। এই প্রতিবেদনগুলি সারা বিশ্বের পঞ্জাবিদের বিব্রত করেছে।’

এর আগে ভগবন্ত মান দাবি করেছিলেন, জার্মান গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা বিএমডাব্লু পঞ্জাবে বিনিয়োগ করবে। তবে সংস্থার তরফে তারপরে সেই দাবি খারিজ করা হয়েছিল। যা নিয়ে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। এদিকে নির্ধারিত সময়ের পরে জার্মানি থেকে দেশে ফেরেন ভগবন্ত। যা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। দেরিতে দেশে ফেরায় ভগবন্ত মান আম আদমি পার্টির কনক্লেভে অংশ নিতে পারেননি। এরই মধ্যে ভগবন্ত মানের মাতার হওয়ার অভিযোগ উঠল। যদিও আম আদমি পার্টির তরফে এই অভিযোগ খারিজ করা হয়েছে। 

এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে আম আদমি পার্টির তরফে বলা হয়েছে, ‘আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ নোংরা কৌশল অবলম্বন করে আমাদের মুখ্যমন্ত্রীকে বদনাম করতে চাইছে। এর জন্য এইসব গুজব ছড়াচ্ছে। তারা এই বিষয়টা হজম করতে পারছে না যে মুখ্যমন্ত্রী মান পঞ্জাবে বিনিয়োগের জন্য কঠোর পরিশ্রম করছেন।’ 

বন্ধ করুন