বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > জুনেই WHO-এর তালিকায় নাম লেখাতে পারে কোভ্যাক্সিন! আমেরিকায় শুরু হতে পারে ট্রায়াল
কোভ্যাক্সিন
কোভ্যাক্সিন

জুনেই WHO-এর তালিকায় নাম লেখাতে পারে কোভ্যাক্সিন! আমেরিকায় শুরু হতে পারে ট্রায়াল

  • আপাতত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তালিকায় (ইমারজেন্সি ইউজ লিস্টিং বা EUL) নেই ভারত বায়োটেকের উৎপাদিত করোনা টিকা কোভ্যাক্সিনের নাম।

আপাতত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগের তালিকায় (ইমারজেন্সি ইউজ লিস্টিং বা EUL) নেই ভারত বায়োটেকের উৎপাদিত করোনা টিকা কোভ্যাক্সিনের নাম। তবে সেই তালিকায় যাতে দ্রুত নাম লেখানো যায়, তার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে ভারত বায়োটেক। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, জুনের মধ্যেই ইমারজেন্সি ইউজ লিস্টিংয়ের জন্য প্রয়োজনীয় নথি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে পাঠিয়ে দেবেন তাঁরা। আর তার ফলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তালিকায় কোভ্যাক্সিনের নাম সংযুক্ত হবে বলে আশা করছে হায়দরাবাদের সংস্থাটি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইমারজেন্সি ইউজ লিস্টিংয়ে কোভ্যাক্সিনের নাম যুক্ত হওয়ার অগ্রগতি নিয়ে এদিন একটি বৈঠক করেন বিদেশ মন্ত্রকের মুখ্য সচিব হর্ষ শ্রীংলা, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা এবং ভারত বায়োটেকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর ভি কৃষ্ণ মোহন। উল্লেখ্য, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তালিকায় না থাকায় কোভ্যাক্সিন টিকা নেওয়া ব্যক্তিরা বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে বাধা প্রাপ্ত হচ্ছেন।

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইমারজেন্সি ইউজ লিস্টিংয়ে কোভ্যাক্সিনের নাম যুক্ত হওয়ার প্রসঙ্গে ভারত বায়োটেক কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, 'সংস্থা ইতিমধ্যেই প্রয়োজনীয় নথির ৯০ শতাংশ জমা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে। বাকি যা নথি আছে, তা জুন মাসের মধ্যেই জমা দিয়ে দেওয়া হবে।' ভারত বায়োটেক কর্তৃপক্ষ ইমারজেন্সি ইউজ লিস্টিংয়ে কোভঅযাক্সিনের নাম যুক্ত হওয়ার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী।

এদিকে হাদরাবাদের সংস্থাটি মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনসট্রেশনের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছে যাতে মার্কিন মুলুকে স্বল্প পরিসরে কোভ্যাক্সিনের তৃতীয় ফেজের পরীক্ষা শুরু করা যায়। এর আগে গত ফেব্রুয়ারিতে ভারত বায়োটেক ঘোষণা করেছিল যে মার্কিন সংস্থা অকুজেন ইনকর্পোরেশনের সঙ্গে তারা চুক্তিবদ্ধ হয়েছে। মার্কিন মুলুকে কোভ্যাক্সিন সরবরাহ এবং বাণিজ্যিক ভাবে উৎপাদন করার লক্ষ্যে সেই চুক্তি করা হয়।

বন্ধ করুন