বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কোভিশিল্ডের ‌টিকা নিয়ে পেলেন কোভ্যাক্সিনের শংসাপত্র, আতান্তরে যুবক!
কোভিশিল্ডের ‌টিকা নিয়ে পেলেন কোভ্যাক্সিনের শংসাপত্র! আতান্তরে যুবক (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
কোভিশিল্ডের ‌টিকা নিয়ে পেলেন কোভ্যাক্সিনের শংসাপত্র! আতান্তরে যুবক (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

কোভিশিল্ডের ‌টিকা নিয়ে পেলেন কোভ্যাক্সিনের শংসাপত্র, আতান্তরে যুবক!

দ্বিতীয় ডোজ কী নেবেন? বিপাকে যুবক।

ভ্যাকসিনের শংসাপত্র বিভ্রাটের জেরে বিপাকে পড়লেন বিহারের এক যুবক। ‘‌কোভিশিল্ডের’‌ ভ্যাকসিন নিয়ে হাতে পেলেন ‘‌কোভ্যাক্সিনের’‌ শংসাপত্র! বিহারের দারভাঙ্গার এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। 

জানা গিয়েছে, দারভাঙ্গার ৩২ বছরের অঙ্কিত শর্মা কো-উইন পোর্টালের মাধ্যমে কোভ্যাক্সিনের স্লট বুক করিয়েছিলেন। ওই যুবকের দাবি, গত ১ মে সমস্তিপুর জেলার হরিপুর অলৌথ মিডল স্কুলের টিকা কেন্দ্রে যান তিনি। সেখানে তাঁকে কোভিশিল্ডের ডোজ দেওয়া হয়। কিন্তু শংসাপত্র হাতে পেয়ে তিনি দেখেন, সেখানে তাঁকে কোভ্যাক্সিনের ডোজ দেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করা রয়েছে। এতে দ্বিতীয় ডোজ নিয়ে আতান্তরে পড়ে যান ওই যুবক।

টিকা শংসাপত্র অনুয়ায়ী অঙ্কিত ১৬ মে (‌ব্যাচ নম্বর ৩৭এফ২১০৪৭এ)‌ টিকা নিয়েছেন। সেখানে দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার জন্য ১৩ জুন থেকে ২৭ জুনের মধ্যে তারিখ নির্ধারিত করা হয়েছে। এপ্রসঙ্গে অঙ্কিত বলেন, ‘‌শংসাপত্রটি অবিলম্বে সঠিক তথ্য নিয়ে সংশোধন করে দিতে আমি সংশ্লিষ্ট সব অফিসারদের অনুরোধ করছি। কারণ, যে ব্যক্তিরা কোভাক্সিনের দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করবেন, তাদের পক্ষে এই ধরনের ভুল বিপজ্জনক হতে পারে।’‌

এই নিয়ে তিনি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টেও একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে দাবি করেন যে, সেখানে ১০০ জনেরও বেশি লোককে টিকা দেওয়া হয়েছে। তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এই বিষয়টি দেখার জন্য অনুরোধ করেছিলেন। কিন্ত তা ব্যর্থ হয়েছে।

এবিষয়ে সমষ্টিপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ সত্যেন্দ্রকুমার গুপ্ত ও জেলার টিকাদান আধিকারিক ডাঃ সতীশকুমার সিনহা ফোন ধরেননি। জেলা প্রোগ্রাম ম্যানেজার (স্বাস্থ্য) এসকে দাস অবশ্য বলেন যে, ‘‌তিনি এই বিষয়ে কথা বলার উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ নন।’‌ 

বন্ধ করুন