বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > চুরি রুখতে গিয়েছিলেন, রেললাইনের ধারে পড়ে রক্তাক্ত লেডি পুলিশ কনস্টেবল
মহিলা কনস্টেবলকে ট্রেন থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ বিহারে। প্রতীকী ছবি 

চুরি রুখতে গিয়েছিলেন, রেললাইনের ধারে পড়ে রক্তাক্ত লেডি পুলিশ কনস্টেবল

  • শিউরে ওঠার মতো ঘটনা। ট্রেনে চেপে বাড়ি থেকে ফিরছিলেন বিহার পুলিশের মহিলা কনস্টেবল। চুরি রুখতে গিয়েছিলেন তিনি। আর তখনই হাড়হিম করা ঘটনা।

আদিত্যনাথ ঝা

চুরিতে বাধা দিয়েছিলেন এক লেডি কনস্টেবল। এর জেরে বিহার পুলিশের ওই মহিলা কনস্টেবলকে ট্রেন থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। সমস্তিপুর- কাটিহার প্য়াসেঞ্জার ট্রেন কাটিহার জংশনে ঢোকার ঠিক আগে এই ঘটনা। সূত্রের খবর, আরতি কুমারী নামে ওই লেডি কনস্টেবল নওয়াদাতে পোস্টিং। তিনি বাড়ি থেকে ট্রেনে করে ফিরছিলেন। জংশনে ঢোকার ঠিক আগে আউটার সিগন্যালের কাছে এই ঘটনা। 

রেললাইনের ধারে গুরুতর জখম অবস্থায় পড়েছিলেন তিনি। দ্রুত তাঁকে কাটিহার জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাঁকে কাটিহার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করা হয়। জখম কনস্টেবল জানিয়েছেন, চারজন দুষ্কৃতী আমার পার্স আর মোবাইল ছিনতাই করার চেষ্টা করছিল। তাদেরকে আটকাতে যাই। তখনই আমাকে ধাক্কা দিয়ে ট্রেন থেকে ফেলে দেয় ওরা।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তাঁর ডান পা ভেঙে গিয়েছে। মাথাতেও গুরুতর আঘাত লেগেছে। এদিকে গোটা ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে। কাটিহার রেল সুপারিন্টেডেন্ট অফ পুলিশের প্রতিক্রিয়ার জন্য় বার বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি। বিহার পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, চলন্ত ট্রেনে ঘটনাটি হয়েছে।

কাটিহারের স্টেশন হাউজ অফিসার রবীন্দ্র কুমার জানিয়েছেন, কাদের এলাকার মধ্যে ঘটনাটি হয়েছে সেটা দেখা হচ্ছে। এদিকে দিন তিনেক আগে অসমের তেজপুর থেকে ট্রেনে চেপে কর্ণাটকে আসছিলেন এক সেনা জওয়ান। তাঁর রহস্যমৃত্য়ু হয়েছিল। এবার বিহারে মহিলা কনস্টেবলকে ট্রেন থেকে ফেল দিল দুষ্কৃতীরা। 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন