বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ছেলে বৃহন্নলাকে বিয়ে করল, অজ্ঞান হয়ে গেল মা!

চলছে প্রাইড মাস। LGBT-দের সমানাধিকারের দাবিতে ছয়লাপ সোশ্যাল মিডিয়া। কিন্তু বিহারের এক ঘটনায় সেই সেই অধিকার নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন। একটা যুবক ও বৃহন্নলার বিয়ে নিয়ে অশান্তি উঠল চরমে।

বিহারের সাসারামের বাসিন্দা এক যুবক গোলুর সঙ্গে নন্দনী নামে এক বৃহন্নলার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। চলতি বছর তাঁরা লুকিয়ে বিয়েও করেন।

বিয়ের পরে গোলু তার বৃহন্নলা স্ত্রী নন্দনীর সঙ্গে কার্গারে ভাড়া বাসায় থাকতেন। পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি জানতে পেরে যান। তাঁরা চাপ প্রয়োগ করে পুত্রকে কিন্নর পুত্রবধূর থেকে আলাদা করার চেষ্টা করেন। যুবককে জোর করে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়।

গোলুর খোঁজে নন্দনী যখন শ্বশুরবাড়ির বাড়িতে পৌঁছলেন, ছেলের মা তাঁকে দেখে অজ্ঞান হয়ে যান। সঙ্গে সঙ্গে জল ছিটিয়ে তাঁর জ্ঞান ফেরান নন্দনী।

কিন্তু যখন হুঁশ ফিরল, তখন ছেলের মা এই বিয়ে অস্বীকার করেন। ছেলে ও পুত্রবধূকে বাড়ি থেকে বের করে দেন।আপাতত স্থানীয় এক আত্মীয়ের বাড়িতে রয়েছেন তাঁরা।

বন্ধ করুন