বাড়ি > ঘরে বাইরে > কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলিকে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নজরদারিতে আনার বিল পাশ লোকসভায়
লোকসভায় নির্মলা সীতারামন
লোকসভায় নির্মলা সীতারামন

কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলিকে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নজরদারিতে আনার বিল পাশ লোকসভায়

  • সীতারামন বলেন কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলির আর্থিক হাল বেশ চিন্তার

কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলিকে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের আওতায় আনার জন্য বিল পাশ হল লোকসভায়। গ্রাহকদের সুরক্ষার স্বার্থে এই বিল পেশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। 

নির্মলা সীতারামন বলেন প্রস্তাবিত আইন শুধু কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ককে ক্ষমতা দেবে কোঅপারেটিভের ব্যাঙ্কিং কার্যকলাপের ওপর নজরদারি করার। এটি কৃষি ক্রেডিট সোশ্যাইটি বা কৃষি উন্নয়নে কোনও সমবায় সমিতি ধার দিলে তার ওপর বলবৎ হবে না। 

সমবায় সমিতির গুরুত্ব লঘু করার জন্য এই বিলটি নয় বলে তিনি জানান। কিন্তু কোনও সমবায় সমিতি যদি ব্যাঙ্কের কাজ করে, তাহলে সেগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করার দরকার যাতে পেশাদারিত্বের সঙ্গে কাজ হয় বলে জানান কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। রাজ্যের রেজিস্ট্রারদের ক্ষমতা এই বিল খর্ব করবে না বলেও তিনি জানান। 

সীতারামন বলেন যে হালেই পিএমসি ও শ্রীগুরু রাঘবেন্দ্র কোঅপারেটিিভ ব্যাঙ্কের হাল খুব খারাপ হয়ে গিয়েছিল পেশাদারিত্বের অভাবে। অতীতের পরিসংখ্যান ঘেঁটে তিনি বলেন ৪৩০টি কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক গত দুই দশকে উঠে যাওয়ার অতিক্রম হয়েছিল কিন্তু কোনও বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কের হাল এরকম হয়নি কারণ সেখানে গ্রাহকদের স্বার্থ সুরক্ষিত করছে ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্ট। 

কোঅপারটিভ ব্যাঙ্ক হয় দুই প্রকারের- আর্বান কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক ও রুরাল কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক। রুরাল কোঅপারেটিব ব্যাঙ্ক আবার বিভক্ত স্টেট কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক ও ডিস্ট্রিক্ট সেন্ট্রাল কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কে। 

আরবিআইয়ের হিসাব অনুযায়ী, দেশে ১৯৩০টি কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক আছে ও তাতে জমা আছে নয় লাখ কোটি টাকার অধিক ধনরাশি। 

এই বিল গ্রাহক স্বার্থ রক্ষার্থে কোনও ব্যাঙ্কের সঙ্গে প্রয়োজনে অন্য ব্যাঙ্ক মিশিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব করেছে। কোনও সময়ই যাতে গ্রাহকদের জমা টাকা আটকে না যায় সেটা নিশ্চিত করেই এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। এই সংক্রান্ত অর্ডিন্যান্সকেই এখন বিল আকারে সংসদে পেশ করেছে কেন্দ্র। 

কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলির পরিস্থিতি বেশ সংকটজনক হওয়ায় করোনার মধ্যে অধ্যাদেশ আনতে বাধ্য হয় কেন্দ্র, বলে জানান সীতারামন। বাজেট অধিবেশনেই এই বিল পাশ করানোর কথা ছিল কিন্ত কোভিডের জন্য সেটা হয়ে ওঠেনি। 

সীতারামন বলেন কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কগুলির আর্থিক হাল বেশ চিন্তার। ২৭৭টি কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্কের লোকসান হচ্ছে ও ১০৫টি ব্যাঙ্ক ন্যূনতম মূলধনের শর্ত পূর্ণ করতে পারছে না। 

 

 

বন্ধ করুন