বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Bird Flu: চিনে বার্ড ফ্লু'তে আক্রান্ত ব্যক্তি, ভরতি হাসপাতালে : রিপোর্ট
চিনে বার্ড ফ্লু'তে আক্রান্ত ব্যক্তি, ভরতি হাসপাতালে : রিপোর্ট। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
চিনে বার্ড ফ্লু'তে আক্রান্ত ব্যক্তি, ভরতি হাসপাতালে : রিপোর্ট। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

Bird Flu: চিনে বার্ড ফ্লু'তে আক্রান্ত ব্যক্তি, ভরতি হাসপাতালে : রিপোর্ট

করোনা মহামারীর মধ্যে বার্ড ফ্লু'তে আক্রান্ত ব্যক্তির হদিশ মিলল চিনে।

করোনা মহামারীর মধ্যে বার্ড ফ্লু'তে আক্রান্ত ব্যক্তির হদিশ মিলল চিনে। চিনের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, জরুরি ভিত্তিতে গোটা অঞ্চল জীবাণুমুক্ত করার কাজ শুরু হয়েছে। জানা গিয়েছে, এইচ৫এন৬ প্রজাতির সংক্রমণ ধরা পড়েছে ওই ব্যক্তির দেহে। সংক্রমিত ব্যক্তিকে চিনের দক্ষিণ-‌পশ্চিমাঞ্চলের একটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম এই ঘটনাটি প্রথম প্রকাশ্যে আসে। ওই সরকারি সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, ৫৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি চিনের দক্ষিণ-‌পশ্চিমাঞ্চলের সিচুয়ান প্রদেশের বেজিংয়ের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা গিয়েছে, জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চলতি মাসেই তিনি ওই হাসপাতালে ভরতি হন। সেখানে তাঁর লালারসের নমুনা পরীক্ষা করার পর বার্ড ফ্লুর রিপোর্ট পজিটিভ আসে। কিন্তু ওই ব্যক্তির সম্পর্কে বিশদে কোনও খবর প্রকাশিত হয়নি। কীভাবে তিনি সংক্রমিত হলেন বা তিনি কোনও মুরগির খামারে কর্মরত ছিলেন কিনা, সে বিষয়ও স্পষ্ট হয়নি। এর আগে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছিলেন, যেহেতু এই রোগ মুরগির মতো গৃহপালিত প্রাণীদের মধ্যে হয়, সেই কারণে রোগটি মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা কম।

কিন্তু বিজ্ঞানীরা বছরের পর বছর ধরে খামারের পশু মধ্যে বন্দি বা মৃত বন্য পাখির উপর গবেষণা চালিয়ে এইচ৫এন৬ ভাইরাসকে বিপজ্জনক বলে চিহ্নিত করেছেন। ৮ বছর আগে লাওসে এই ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত করা হয়েছিল। পরে এই ভাইরাস চিন-‌সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশে ছড়িয়ে পড়ে।

গত সপ্তাহে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু'কে জানানো হয়েছে, ২০১৪ সাল থেকে এইচ৫এন৬ ভাইরাস সংক্রমণের ৩২টি নিশ্চিত রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। তার মধ্যে থেকে ১৯ জনের মৃত্যুও হয়েছিল। চলতি বছরের ১৩ মে সিচুয়ান প্রদেশে সর্বশেষ ওই ব্যক্তির দেহে এই ভাইরাসের হদিশ মিলেছে।

বন্ধ করুন