বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‌জাল মার্কশিট মামলায় জেল হল বিজেপি বিধায়কের
দোষী বিজেপি বিধায়ক
দোষী বিজেপি বিধায়ক

‌জাল মার্কশিট মামলায় জেল হল বিজেপি বিধায়কের

  • বিচারপতি জানান, বিধায়ককে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হল। সেইসঙ্গে ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হল।

জাল মার্কশিট মামলায় ৫ বছরের জেল হল বিজেপি বিধায়ক ইন্দ্র প্রতাপ তিওয়ারির। কারাদণ্ডের পাশাপাশি ৮ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয় তাঁকে। ২৮ বছর আগে এই মামলা দায়ের হয়েছিল। সেই মামলারও নিষ্পত্তি হল। গত বিধানসভা ভোটে উত্তরপ্রদেশের গোসাইগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন তিওয়ারি। পরের বছর ফের বিধানসভা ভোট। তার আগে অস্বস্তি বাড়ল বিজেপি শিবিরে।

 

সম্প্রতি বিধায়ক–সাংসদ আদালতের বিশেষ বিচারক পূজা সিং তাঁর রায় ঘোষণা করেন। বিচারপতি জানান, বিধায়ককে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হল। সেইসঙ্গে ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হল। বিধায়কের নামে একাধিক ফৌজদারি মামলা রয়েছে। সেই মামলা আদালতে বিচারধীন অবস্থায় রয়েছে। যখন আদালতে এই রায় ঘোষণা করা হয়, তখন আদালত কক্ষেই হাজির ছিলেন বিধায়ক। রায় ঘোষণার পরই তাঁকে জেল হেফাজতে নিয়ে নেওয়া হয়। প্রতাপের দুই সহযোগী কৃপানিধান তিওয়ারি এবং ফুলচাঁদ যাদবকেও সাজা শুনিয়েছে আদালত। তাঁদের বিরুদ্ধেও ভুয়ো মার্কশিট তৈরি করে কলেজে পড়াশোনা চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ছিল।

উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালে অযোধ্যার সাকেত ডিগ্রি কলেজের তৎকালীন অধ্যক্ষ যদুবংশ রাম ত্রিপাঠী রাম জন্মভূমি পুলিশ স্টেশনে প্রতাপের বিরুদ্ধে মার্কশিট জালিয়াতির মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়ের করে বলা হয়, ১৯৯০ সালে স্নাতকস্তরে দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষায় ফের করেছিলেন প্রতাপ। কিন্তু ভুয়ো মার্কশিট তৈরি করে জমা দিয়ে পরের ক্লাসে ভর্তি হয়ে যান তিনি। তবে কলেজের অধ্যক্ষ মামলা দায়ের করলেও, প্রতাপের বিরুদ্ধে প্রথম চার্জশিট জমা পড়ে তার ১৩ বছর পর। দীর্ঘ আইনি লড়াই চলার পর অভিযোগকারী প্রাক্তন ওই অধ্যক্ষেরও মৃত্যু হয়। বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেন কলেজের তৎকালীন ডিন মহেন্দ্রকুমার আগরওয়াল ও আরও বেশ কয়েকজন। তার ভিত্তিতেই দোষী সাব্যস্ত হন প্রতাপ।

 

বন্ধ করুন