বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > উত্তরাখণ্ড ভোটে লকেটকে বিশেষ দায়িত্ব, জাতীয় ক্ষেত্রে গুরুত্ব হুগলির সাংসদের
বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

উত্তরাখণ্ড ভোটে লকেটকে বিশেষ দায়িত্ব, জাতীয় ক্ষেত্রে গুরুত্ব হুগলির সাংসদের

  • শেষ পর্যন্ত মন্ত্রীত্ব পাওয়ার দৌড়ে তিনি সফল হতে পারেননি। তবে তাঁকে নিরাশ করেনি গেরুয়া শিবির।

লকেট চট্টোপাধ্যায়। অভিনয়ের জগৎ থেকে একটা সময় পা রেখেছিলেন রাজনীতির আঙিনায়। বর্তমানে তিনি হুগলির বিজেপি সাংসদ। এবারের বিধানসভা নির্বাচনে পরাজিত হয়েছেন তিনি। তবে তাঁকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী করা হবে বলেও নানা জল্পনা ছড়িয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মন্ত্রীত্ব পাওয়ার দৌড়ে তিনি সফল হতে পারেননি। তবে তাঁকে নিরাশ করেনি গেরুয়া শিবির। এবার জাতীয় ক্ষেত্রে তাঁকে গুরুত্ব দিয়েছে দল। বিজেপি সূত্রে খবর, আগামী বছর উত্তরাখণ্ডের বিধানসভা নির্বাচন। সেই রাজ্যের বিজেপির সহ পর্যবেক্ষক হিসাবে কাজ করবেন লকেট চট্টোপাধ্যায়।

কেন্দ্রীয় সংসদীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশীকে পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তাঁর তত্ত্ববধানেই কাজ করবেন লকেট চট্টোপাধ্যায়ও আরপি সিং। তবে লকেটের এই নয়া দায়িত্বকে ঘিরেও নানা কথা উঠতে শুরু করেছে রাজনীতির আঙিনায়। এদিকে প্রশ্ন উঠছে তবে কি দুধের স্বাদ ঘোলে মেটাতে বলা হয়েছে?  কেন্দ্রীয় মন্ত্রীত্ব না পাওয়ার অভিমান ভোলার জন্য সহ পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে লকেটকে!

তবে সহ পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব পেয়ে যথেষ্ট খুশি লকেট চট্টোপাধ্যায়। সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, 'আমি খুব খুশি যে আমাকে দল এতটা গুরুত্ব দিয়েছে। জাতীয় স্তরে কাজের সুযোগ করে দিয়েছে। দিল্লি থেকে ফিরে দলের শীর্ষনেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে যতদ্রুত সম্ভব কাজে নেমে পড়ব।' তবে দল সূত্রে খবর শুধু উত্তরাখণ্ড নয়, উত্তরপ্রদেশের নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে সংগঠনকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে। ৬টি জোনে ভাগ করে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। প্রতিটি জোনে আলাদা নেতৃত্বকে দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে। তাৎপর্যপূর্ণভাবে অরবিন্দ মেনন যিনি বাংলার পর্যবেক্ষক ছিলেন তাঁকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর কেন্দ্র গোরক্ষনাথের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে।

 

বন্ধ করুন