বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কাবুলে শোনা গেল বিস্ফোরণের আওয়াজ, সম্ভবত রকেট হামলা : রিপোর্ট
গত বৃহস্পতিবার কাবুলের জোড়া বিস্ফোরণে আহত একজন। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
গত বৃহস্পতিবার কাবুলের জোড়া বিস্ফোরণে আহত একজন। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

কাবুলে শোনা গেল বিস্ফোরণের আওয়াজ, সম্ভবত রকেট হামলা : রিপোর্ট

  • জোড়া আত্মঘাতী বিস্ফোরণের চারদিনের মাথায় আবারও বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেল কাবুলে।

জোড়া আত্মঘাতী বিস্ফোরণের চারদিনের মাথায় আবারও বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেল কাবুলে। একাধিক সংবাদসংস্থার প্রতিবেদনে তা জানানো হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সম্ভবত রকেট হামলা চলেছে। সেই ঘটনায এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে দাবি করা হয়েছে।

দু'জন প্রত্যক্ষদর্শীকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, কাবুল বিমানবন্দরের কাছে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গিয়েছে। বিমানবন্দরের উত্তর দিকের একটি বাড়িতে সম্ভবত রকেট আছড়ে পড়েছে। একাধিক টেলিভিশনের ফুটেজে কালো ধোঁয়া গলগল করে বেরোতে দেখা গিয়েছে। তবে হামলার বিষয়ে সরকারিভাবে আপাতত কোনও জানানো হয়নি। সেটা কোনও জঙ্গি হামলা কিনা, তা এখনও স্পষ্ট হয়নি। মার্কিন সেনা বা তালিবানের তরফে আপাতত মুখ খোলা হয়নি।

এমনিতে বৃহস্পতিবার জোড়া বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল কাবুল। তার জেরে যে মানুষগুলো আফগানিস্তান ছেড়ে যাওয়ার জন্য মরিয়া ছিলেন, তাঁদের অনেকেই মারা যান। কেউ আবার আহত হয়ে হাসপাতালে ভরতি হতে বাধ্য হন। সেই জোড়া হামলার দায় স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট-খোরাসান গোষ্ঠী। তারপরই পূর্ব আফগানিস্তানের নঙ্গাহার প্রদেশে অবস্থিত আইএসের গোপন ডেরায় অভিযান চালায় মার্কিন সেনা। সেই অভিযানে দুই জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। সেই উত্তেজনার আবহেই শনিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন, আগামী ২৪-৩৬ ঘণ্টার মধ্যে আরও একটি বিস্ফোরণ হতে পারে। বাইডেন বলেন, 'ওদেরকে আমি বাহিনীর নিরাপত্তায় বাড়তি জোর দিতে বলেছি। আমাদের বাহিনীকে রক্ষা করতে যাবতীয় ক্ষমতা, সম্পদের জোগান এবং পরিকল্পনা তৈরি রাখার নির্দেশ দিয়েছি।' সঙ্গে বলেছিলেন, আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের শেষ কয়েকদিন 'অত্যন্ত বিপজ্জনক।'

বন্ধ করুন