বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আইপিএস ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো ভাঙছে কেন্দ্র, মমতার সমর্থনে তোপ কেজরির
বাংলার প্রশাসনিক কাজে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপের নিন্দা করে টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। 
বাংলার প্রশাসনিক কাজে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপের নিন্দা করে টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। 

আইপিএস ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো ভাঙছে কেন্দ্র, মমতার সমর্থনে তোপ কেজরির

  • বাংলার প্রশাসনিক কাজে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপের নিন্দা করে টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী।

এবার আইপিএস অফিসারদের ডেপুটেশন ইস্যুতে সরাসরি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে দাঁড়াল কেজরিওয়াল। বাংলার প্রশাসনিক কাজে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপের নিন্দা করে টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। শুক্রবার সকালে টুইট করে মমতাকে সমর্থনের বার্তা দেন তিনি। টুইটে আপ সুপ্রিমো লেখেন, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উপর চাপ তৈরি করে তিন আইপিএস অফিসারের বদলি নিয়ে কেন্দ্রের ভূমিকার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। বাংলায় ভোটের আগে কেন্দ্রের পদক্ষেপ যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর উপর আঘাত।

এই ইস্যুতে কেন্দ্র–রাজ্য সংঘাত অব্যাহত। বিপাকে রাজ্যে কর্মরত তিন আইপিএস অফিসার। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশের পরও কাজে যোগ দিচ্ছেন না তাঁরা। নবান্নের ছাড়পত্র মেলেনি কাজেই আজ শুক্রবার দিল্লি যাচ্ছেন না ওই তিন পুলিশ আধিকারিক। রাজ্যে কর্মরত তিন আইপিএস রাজীব মিশ্র, প্রবীণ ত্রিপাঠী ও ভোলানাথ পাণ্ডে–কে যখন কেন্দ্রের ডেপুটেশনে ডেকে পাঠানো হয়, তখনই আপত্তি তোলে রাজ্য।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার রাজ্য সফরে ডায়মন্ডহারবারে তাঁর কনভয়ে হামলার ঘটনা নিয়ে কেন্দ্র–রাজ্যের মধ্যে নতুন করে সংঘাত তৈরি হয়। যথাযথ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেনি রাজ্য পুলিশ, কেন্দ্রের তরফে এই অভিযোগ তুলে রাজ্য প্রশাসনের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠানো হয়। তারপর রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত তিন আইপিএস অফিসার রাজীব মিশ্র, প্রবীণ ত্রিপাঠি এবং ভোলানাথ পাণ্ডেকে বদলি করে দেওয়া হয় দিল্লি থেকে। কিন্তু তিন অফিসারকে ছাড়তে নারাজ নবান্ন। বৃহস্পতিবার ফের তাঁদের ডেপুটেশনে চেয়ে রাজ্যকে চিঠি পাঠায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তখন মুখ্যমন্ত্রী কড়া ভাষায় টুইট করে জানান, কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ আইপিএস ক্যাডার রুল–১৯৫৪’র পরিপন্থী।

ওই তিন অফিসারকে ছাড়া হবে না, সাংবাদিক সম্মেলনে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন পঞ্চায়েত ও গ্রামোয়ন্নন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। নবান্নের ছাড়পত্র না মেলায় আগামীকাল দিল্লি যেতে পারছেন না তিন আইপিএস অফিসার। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের পদক্ষেপের বিরোধিতা করে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়িয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আপ সুপ্রিমো। বাংলার প্রতি এই ধরনের আচরণ যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় আঘাত বলে তিনি মনে করছেন।

বন্ধ করুন