বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ওয়াশিং মেশিন থেকে উদ্ধার শিশুর নিথর দেহ, বাবা ঘুমোচ্ছিলেন ঘরে
ওয়াশিং মেশিন থেকে উদ্ধার শিশুর দেহ । প্রতীকী ছবি।

ওয়াশিং মেশিন থেকে উদ্ধার শিশুর নিথর দেহ, বাবা ঘুমোচ্ছিলেন ঘরে

  • প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান শিশুটিকে খুনই করা হয়েছে। খুন করে শিশুটিকে ওয়াশিং মেশিনের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তবে ওয়াশিং মেশিনে ঢুকিয়েও খুন করা হতে পারে। সব দিক খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

ভয়াবহ ঘটনা। রাতভর শিশুর খোঁজ পাওয়া যায়নি। বলা ভালো খোঁজও করেননি কেউ। বাবা ঘুমিয়ে ছিলেন। মা নার্সের কাজ করেন। নাইট ডিউটিতে গিয়েছিলেন। সকালে বাড়ি ফিরে ছেলের খোঁজ করেন। কিন্তু কোথায় ছেলে? এরপর পুলিশে খবর দেওয়া হয়। আমেরিকার টেক্সাসের পুলিশও এসে তন্ন তন্ন করে খুঁজে পায়নি প্রথমে।

পরে বাড়ির ওয়াশিং মেশিন থেকে উদ্ধার হয়েছে শিশুর নিথর দেহ। কিন্তু কীভাবে ওই শিশু ওয়াশিং মেশিনের মধ্যে গেল? কেউ কি তাকে ভেতরে ঢুকিয়ে দিয়েছিল? নাকি নিজেই কোনওভাবে মেশিনের মধ্যে ঢুকে আর বেরোতে পারেনি? পদে দমবন্ধ হয়ে মারা যায় ওই মেশিনের মধ্যেই? এমনই নানা প্রশ্ন ভাবাচ্ছে তদন্তকারীদের।

 দম্পতি নিঃসন্তান। তাঁরা ট্রয় খোইলারকে দত্তক নিয়েছিলেন। ২০১৯ সাল থেকেই ওই শিশু তাদের কাছে ছিল। সকালে কাজ থেকে ফিরে এসে শিশুর মা জানতে পারেন ট্রয়ের কোনও খোঁজ নেই। এদিকে বাবাও ঘুমোচ্ছিলেন সেই সময়। বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। প্রতিবেশীরাও বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। কিন্তু কোথাও শিশুর খোঁজ মেলেনি। এরপর পুলিশ আসে। পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে।

পুলিশ সূত্রে খবর, শিশুটি পোশাক পরেই ছিল। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান শিশুটিকে খুনই করা হয়েছে। খুন করে শিশুটিকে ওয়াশিং মেশিনের মধ্যে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তবে ওয়াশিং মেশিনে ঢুকিয়েও খুন করা হতে পারে। সব দিক খতিয়ে দেখছে পুলিশ। সম্ভবত মাঝরাতে এই কাণ্ড ঘটানো হয়েছে বলে অভিযোগ। কিন্তু এই ঘটনার পেছনে কে বা কারা রয়েছে সেটাই খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে পুলিশ।  

বন্ধ করুন