বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > রাশিয়ার হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বার্লিনে গ্রেফতার ব্রিটিশ দূতাবাসকর্মী
রাশিয়ার হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বার্লিনে গ্রেফতার ব্রিটিশ দূতাবাসকর্মী (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিকচার অ্যালায়েন্স/ডয়চে ভেলে)
রাশিয়ার হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বার্লিনে গ্রেফতার ব্রিটিশ দূতাবাসকর্মী (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিকচার অ্যালায়েন্স/ডয়চে ভেলে)

রাশিয়ার হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে বার্লিনে গ্রেফতার ব্রিটিশ দূতাবাসকর্মী

  • তিনি রাশিয়ার হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি করতেন বলে অভিযোগ।

এক ব্রিটিশ নাগরিককে গ্রেফতার করেছে জার্মান পুলিশ। তিনি রাশিয়ার হয়ে গুপ্তচরবৃত্তি করতেন বলে অভিযোগ।

বার্লিনে অবস্থিত ব্রিটিশ দূতাবাসে কাজ করতেন ডেভিড এস। তার পুরো নাম জার্মান পুলিশ গোপন রেখেছে। অভিযোগ, ২০২০ সালের নভেম্বর মাস থেকে ওই ব্যক্তি অর্থের বিনিময়ে রাশিয়াকে তথ্য পাচার করছিলেন। জার্মান এবং ব্রিটেনের গোয়েন্দারা একত্রে তদন্তে নেমেছেন।

জার্মান পুলিশের সূত্র সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বেশ কিছুদিন ধরেই ওই ব্যক্তির উপর নজর রাখা হচ্ছিল। তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালানোর পরেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জার্মান এবং ব্রিটেনের গোয়েন্দারা জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছেন। তবে প্রাথমিক তদন্ত করছে জার্মান পুলিশ। ওই ব্যক্তিকে জার্মান আদালতেও তোলা হয়েছিল পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার জন্য।

ব্রিটেনের গোয়েন্দাদের বক্তব্য, ৫৭ বছরের ওই ব্যক্তি গত বছর রাশিয়ার এক গোয়েন্দার সংস্পর্শে আসেন। অর্থের বিনিময়ে তিনি ওই ব্যক্তিকে কিছু গোপন তথ্য পাচার করেন। তবে রাশিয়ার গোয়েন্দা তাঁকে কত অর্থ দিয়েছিলেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়। জার্মান এবং ব্রিটেনের গোয়েন্দাদের অনুমান, অন্তত একবার তিনি তথ্য পাচার করেছেন। একটি ঘটনার তথ্যপ্রমাণ তাঁদের হাতে আছে। তবে তাঁদের সন্দেহ, একাধিকবার ওই কাজ করেছেন আটক ব্যক্তি।

ব্রিটিশ দূতাবাসের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমকে অবশ্য জানিয়েছেন, আটক ব্যক্তি দূতাবাসে উঁচু পদে কাজ করতেন না। ফলে গুরুত্বপূর্ণ নথি তার হাতে ছিল না। যে নথি তিনি রাশিয়ার গোয়েন্দাকে পাঠিয়েছেন, তা কাউন্টার টেররিজম সংক্রান্ত।ওই ব্যক্তিকে ব্রিটেন নিয়ে যাওয়া হবে কিনা, সে বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে ব্রিটিশ পুলিশ জানিয়েছে, জার্মান পুলিশই প্রাথমিক তদন্ত করবে।

বন্ধ করুন