বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মাদক নিয়ে পাকিস্তান থেকে উড়ে আসা ড্রোনকে গুলি,পঞ্জাব সীমান্তে বড় সাফল্য BSF-এর
মাদক নিয়ে পাকিস্তান থেকে উড়ে আসা ড্রোনকে গুলি পঞ্জাবে (ছবি এএনআই/টুইটার)

মাদক নিয়ে পাকিস্তান থেকে উড়ে আসা ড্রোনকে গুলি,পঞ্জাব সীমান্তে বড় সাফল্য BSF-এর

  • ড্রোনের মাধ্যমে অস্ত্র ও গোলাবারুদ সরবরাহ করে নিরাপত্তা বাহিনীর উদ্বেগকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে পাক জঙ্গিরা। এরই মধ্যে রয়েছে মাদক পাচারও।

সোমবার পঞ্জাবের ফিরোজপুর সেক্টরে আন্তর্জাতিক সীমান্তে বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ) ৪ কেজিরও বেশি সন্দেহজনক মাদক বহনকারী একটি পাকিস্তানি ড্রোনকে গুলি করে মাটিতে নামায়। জানা গিয়েছে ড্রোনটি কোয়াডকপ্টার। কোয়াডকপ্টারটিকে ভোররাত প্রায় ৩টে নাগাদ সনাক্ত করেন সীমান্তে মোতায়েন জওয়ানরা। সৈন্যরা একটি গুনগুন শব্দ শুনেই ড্রোনের আন্দাজ পান। বিএসএফের একজন মুখপাত্র বলেন, ড্রোনকে লক্ষ্য করে তারা একটি ‘প্যারা বোমা’ মেরে স্থানটিকে আলোকিত করে। পরে তা গুলি করে নামানো হয়।

বিএসএফ সূত্রে জানানো হয়েছে, একটি ছোট সবুজ রঙের ব্যাগ ড্রোনের সাথে যুক্ত ছিল। সেই ব্যাগের ভিতর হলুদ মোড়কের চারটি প্যাকেট এবং একটি কালো মোড়কের ছোট প্যাকেট ছিল। উদ্ধার হওয়া নিষিদ্ধ মাদকের মোট ওজন প্রায় ৪.১৭ কেজি এবং কালো রঙের মোড়াকের প্যাকেটটির ওজন প্রায় ২৫০ গ্রাম।

সেন্সর এবং বেড়ার সুরক্ষার পাশাপাশি নিয়ন্ত্রণরেখায় বিপুল সংখ্যক নিরাপত্তারক্ষী মোতায়েন করা হয়েছে। তা সত্ত্বেও, পাকিস্তানভিত্তিক সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলির এই ড্রোন অনুপ্রবেশ ঠেকানোর জন্য এখনও কোন নির্দিষ্ট ব্যবস্থা নেই। ড্রোনের মাধ্যমে অস্ত্র ও গোলাবারুদ সরবরাহ করে নিরাপত্তা বাহিনীর উদ্বেগকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে পাক জঙ্গিরা। এরই মধ্যে রয়েছে মাদক পাচারও। শুধু পঞ্জাব নয়, কাশ্মীরেও একই কায়দায় অস্ত্র, মাদক পাচার করে পাকিস্তান। সীমান্তে ড্রোন-রোধক প্রযুক্তির ঘাটতি থাকায় এই পাচার রুখতে সমস্যা হচ্ছে পুলিশের বা সীমান্তরক্ষীদের।

বন্ধ করুন