বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রবল বৃষ্টিতে ধসে গেল রাস্তা, উলটো হয়ে মাটিতে ঢুকে গেল গাড়ি
প্রবল বৃষ্টিতে ধসে গেল রাস্তা, উলটো হয়ে মাটিতে ঢুকে গেল গাড়ি। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
প্রবল বৃষ্টিতে ধসে গেল রাস্তা, উলটো হয়ে মাটিতে ঢুকে গেল গাড়ি। (ছবি সৌজন্য এএনআই)

প্রবল বৃষ্টিতে ধসে গেল রাস্তা, উলটো হয়ে মাটিতে ঢুকে গেল গাড়ি

  • রেল আন্ডারপাসের জমা জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে এক যুবকের।

সোমবার সকাল থেকেই লাগাতার বৃ্ষ্টি হচ্ছে দিল্লিতে। তারইমধ্যে দ্বারকার কাছে রাস্তায় ধসে গিয়ে মাটির মধ্যে উলটো হয়ে ঢুকে গেল গাড়ি। পরে সেই গাড়িটি ক্রেন দিয়ে টেনে বের করা হয়। ঘটনায় কোনও হতাহতের খবর মেলেনি।

দিল্লি পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, দ্বারকা সেক্টর ১৮-র কাছে একটি পাকা রাস্তার মাঝ বরাবর একাংশ ধসে যায়। তার জেরে একেবারে উলটোভাবে গর্তের মধ্যে ঢুকে যায় গাড়িটি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে উদ্ধারকারী দল। ক্রেন দিয়ে গাড়িটি টেনে তোলা হয়। ঘটনায় কেউ আহত হয়নি।

এমনিতে সোমবার সকালে প্রবল বৃষ্টির মধ্যে ঘুম ভাঙে দিল্লিবাসীর। লাগাতার বৃষ্টিতে আইটিও, রিং রোড, প্রগতি ময়দান, পালাম, কিরারি, রোহতক রোড, ধৌলা কুয়াঁ, কিষানগঞ্জ রেল আন্ডারপাস, গীতা কলোনি-সহ রাজধানীর একাধিক এলাকায় জল জমে যায়। জলের তলায় চলে যায় কলোনি এবং বাজার-সহ একাধিক নীচু এলাকা। নজফগড় এবং নারেলা বাজারের যে ছবি ছড়িয়ে পড়েছে, তাতে মানুষকে হাঁটু-সমান জলে হেঁটে দেখা দিয়েছে। যদিও পূর্ত দফতরের তরফে জানানো হয়, অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে জল নামানোর চেষ্টা করা হয়েছে।

তাতে অবশ্য তেমন কোনও লাভ হয়নি। বরং বিভিন্ন জায়গায় জল জমে থাকার কারণে প্রবল যানজট তৈরি হয়। আইটিও, মথুরা রোড, রিং রোড-সহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় শামুকের গতিতে গাড়ি এগোতে থাকে। চরম দুর্ভোগে পড়েন অফিসযাত্রীরা। তেমনই একজন আয়কর বিভাগে কর্মরত মোহিত তোমর জানান, অন্যদিন যেখানে আইটিও টপকাতে তাঁর ১০ মিনিট লাগে, সোমবার সেই রাস্তা পার করতেই তাঁর পাক্কা দেড় ঘণ্টা লেগেছে। তারইমধ্যে সেলফি তুলতে গিযে পুল প্রহ্লাদপুরের রেল আন্ডারপাসের জমা জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে এক যুবকের।

বন্ধ করুন