বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বান্ধবীর বাড়িতে ঢুকতে গিয়ে ধরা পড়ল যুবক, লজ্জায় পালাল পাকিস্তানে!
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

বান্ধবীর বাড়িতে ঢুকতে গিয়ে ধরা পড়ল যুবক, লজ্জায় পালাল পাকিস্তানে!

  • জানা গিয়েছে গত বছরের ৪ নভেম্বর সে সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে চলে যায়

প্রেম করতে গিয়ে ধরা পড়ে একেবারে হাজতবাস। তবে এই দেশে নয়, পাকিস্তানের জেলে আপাতত আছে এক রাজস্থানি যুবক। প্রেমিকা কিন্তু ভারতীয়। কি, সব গুলিয়ে যাচ্ছে? তাহলে একেবারে গোড়া থেকে পড়ুন। 

মাত্র ১৯ বছর বয়সী জেমারা রাম মেওয়াল রাজস্থানের বাড়মেঢ় জেলার অন্তর্গত সজ্জন কা পীর গ্রামে থাকে। জানা গিয়েছে গত বছরের ৪ নভেম্বর সে সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে চলে যায়। তার খোঁজ না পেয়ে স্থানীয় বিরজাদ পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ দায়ের করে পরিবারের লোক। মিসিং রিপোর্টে পরিবার বলে যে তাদের মনে হয় জেমারা রাম হয়তো পাকিস্তানে চলে গিয়েছে। ওই পারেও তাদের চেনাশোনা আছে বলে জানায় যুবকের পরিবার। ভারতে তাদের বাড়ি সীমান্ত থেকে মাত্র একশো মিটার দূরে। ছেলেটির পায়ের ছাপ তারা সীমান্তের সামনে দেখেছেন বলে পরিবারের লোক জানায় পুলিশকে। একই সঙ্গে পাকিস্তান থেকে ছেলেটির বিষয় ফোনও পেয়েছেন বলে জানান তাঁরা। 

স্থানীয় পুলিশের তরফ থেকে হিন্দুস্তান টাইমসে জানানো হয়েছে যে এই ছেলেটির সঙ্গে পাশের বাড়ির মেয়ের প্রেম ছিল। মেয়েটির বাড়ি ঢুকতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ে সে। মেয়েটির বাবা বলে যে এবার তিনি ছেলেটির পরিবারের কাছে নালিশ ঠুকবেন। তখনই ভয় পেয়ে সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে চলে যায় এই তরুণ। 

মিসিং রিপোর্ট পাওয়ার পর ছেলেটির জন্য তল্লাশি করা হয় কিন্তু পাওয়া যায় নি। এরপর বিএসএফের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয় যাতে তারা পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে। বিএসএফের তরফে নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্তা জানিয়েছেন যে গত বছর ৪ নভেম্বর ছেলেটি বর্ডার পেরিয়েছিল। বর্তমানে সে পাকিস্তানের সিন্ধ জেলে রয়েছে। দফায় দফায় বৈঠকের পর এই কথা স্বীকার করেছে পাক কর্তৃপক্ষ। তবে কবে তাকে ছাড়া হবে সেটা বলা হয়নি। তাদের দেশের আইন মোতাবেক সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পাক অফিসাররা। 

বন্ধ করুন