বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ১০০ কোটির তোলাবাজি কাণ্ডে অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে মামলা সিবিআই-এর
মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ। (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ। (ফাইল ছবি, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

১০০ কোটির তোলাবাজি কাণ্ডে অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে মামলা সিবিআই-এর

  • প্রাথমিক তদন্তে যে প্রাইমা ফেসি প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে এফআইআর করার জন্য যথেষ্ট।

মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা দায়ের করল সিবিআই। মূল অভিযুক্ত অনিল দেশমুখ এবং 'অজ্ঞাত ব্যক্তিদের' বিরুদ্ধে এই মামলা দায়ের করল সিবিআই। সূত্রের খবর, প্রাথমিক তদন্তে যে প্রাইমা ফেসি প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে এফআইআর করার জন্য যথেষ্ট।

এর আগে অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল বম্বে হাইকোর্ট। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিমকোর্টে গিয়েছিলেন মহারাষ্ট্র সরকার। তবে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দেয়, বম্বে হাইকোর্টের নির্দেশে তারা কোনও হস্তক্ষেপ করবে না।

উল্লেখ্য, অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে তোলাবাজি ও আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ এনেছিলেন মুম্বইয়ের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিং। তারই প্রেক্ষিতে বম্বে হাইকোর্টে রুজু হয় তিনটি জনস্বার্থ মামলা। সেই মামলার প্রেক্ষিতেই অনিলের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেয় বম্বে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপঙ্কর দত্তের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ।

এর আগে অনিল দেশমুখের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়ে মামলা দায়ের করেছিলেন মুম্বই পুলিশের প্রাক্তন কমিশনার পরমবীর সিং। তাঁর দাবি ছিল, বারও রেস্তরাঁগুলি থেকে মাসে ১০০ কোটি টাকা তোলা আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করে দিয়েছিলেন অনিল। তোলা আদায়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল পুলিশের বিভিন্ন আধিকারিক ও কর্মীর উপর। তাঁদের মধ্যে অন্যতম মুম্বই পুলিশের প্রাক্তন আধিকারিক সচিন ওয়াজে। আপাতত তিনি এনআইএ হেফাজতে রয়েছেন। তবে এই ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অনিল দেশমুখ।

বন্ধ করুন