বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আলাপনের বিরুদ্ধে বেঞ্চ হপিংয়ের অভিযোগ তুলল কেন্দ্র, হলফনামা দিল্লি হাইকোর্টে
পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। (HT_PRINT)

আলাপনের বিরুদ্ধে বেঞ্চ হপিংয়ের অভিযোগ তুলল কেন্দ্র, হলফনামা দিল্লি হাইকোর্টে

  • আলাপনের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ উঠেছিল। সেই মামলা চলছিল ক্যাটে বা সেন্ট্রাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুন্যালে। পরে সেই মামলা দিল্লিতে শুনানির সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন আলাপন।

পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যপাদ্যায়ের বিরুদ্ধে এবার বেঞ্চ হপিং বা এক বেঞ্চ থেকে অন্য বেঞ্চে গিয়ে মামলা করার অভিযোগ উঠল। দিল্লি হাইকোর্টে হলফনামা দিয়ে আলাপনের বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ এনেছে কেন্দ্র। আলাপনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি এক বেঞ্চ থেকে অন্য বেঞ্চে গিয়ে যেভাবে মামলা করেছেন আইনে তার অনুমতি নেই।

আলাপনের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ উঠেছিল। সেই মামলা চলছিল ক্যাটে বা সেন্ট্রাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুন্যালে। পরে সেই মামলা দিল্লিতে শুনানির সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন আলাপন। কিন্তু, ক্যাটের চেয়ারম্যান সেই মামলা দিল্লি হাইকোর্টে সরিয়ে দেন। এরপরেই দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন আলাপন। সেই সময় মামলাটি চলছিল দিল্লি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ডি এন পটেল ও বিচারপতি জ্যোতি সিংহর বেঞ্চে। সেখানে আলাপনের আর্জি খারিজ হয়ে যায়। তারপরে বিচারপতি ডি এন পটেল অবসর নেওয়ায় ডিভিশন বেঞ্চের রায় পুনর্বিবেচনার জন্য বিচারপতি রাজীব শাকধের ও বিচারপতি জ্যোতি সিংহের বেঞ্চে আর্জি জানান আলাপন। সেক্ষেত্রে কেন্দ্রের বক্তব্য হলফনামা আকারে জমা দিতে বলেছিল ডিভিশন বেঞ্চ। তার ভিত্তিতেই হলফনামা দিয়ে একথা জানায় কেন্দ্র।

এক্ষেত্রে কেন্দ্রের বক্তব্য হল, আলাপন এভাবে পুনর্বিবেচনার আর্জি করতে পারেন না। আইনে এর কোনও অনুমতি নেই। কেন্দ্রের অভিযোগ, এভাবে এক বেঞ্চকে আড়ালে রেখে অন্য বেঞ্চে মামলা সরাতে চাইছেন আলাপন। এটি আইন বহির্ভূত। যদিও এখনও মামলার রায় ঘোষণা করেনি দিল্লি হাইকোর্ট।

বন্ধ করুন