বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘নিভবে না অমর জওয়ান জ্যোতি’, তোপের মুখে অনির্বাণ শিখা নিয়ে ব্যাখ্যা কেন্দ্রের
অমর জওয়ান জ্যোতি নিয়ে ব্যাখ্যা কেন্দ্রের
অমর জওয়ান জ্যোতি নিয়ে ব্যাখ্যা কেন্দ্রের

‘নিভবে না অমর জওয়ান জ্যোতি’, তোপের মুখে অনির্বাণ শিখা নিয়ে ব্যাখ্যা কেন্দ্রের

  • কেন ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়ালে মিশছে অমর জওয়ান জ্যোতি? ব্যাখ্যা দিল কেন্দ্র…

ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়ালে মিশছে অমর জওয়ান জ্যোতির অনির্বাণ শিখা। আর এই নিয়ে রাহুল গান্ধী সহ একাধিক বিরোধী নেতা গর্জে উঠেছেন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে। এই আবহে ইন্দিরা গান্ধীর প্রতিষ্ঠিত স্মৃতিসৌধের অনির্বাণ শিখা নিয়ে ব্যাখ্যা দিল নরেন্দ্র মোদীর নেতত্বাধীন বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার। উল্লেখ্য, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মত্যাগ করা ভারতীয় সেনাদের প্রতি শ্রদ্যাজ্ঞাপন করতে অমর জ্যোতি প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন তত্কালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী।

কেন ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়ালে মিশছে অমর জওয়ান জ্যোতি? কেন্দ্রের বক্তব্য, ইন্ডিয়া গেটে খোদাই করা ৯০ হাজার সেনার কেউই ১৯৭১ সালের যুদ্ধে অংশ নেননি। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে অংশ নিয়ে শহিদ হওয়া জওয়ানদের নাম খোদাই করা সেখানে। যদিও অমর জ্যোতির উদ্দেশ্য ছিল ৭১-এর যুদ্ধে শহিদ জওয়ানদের প্রতি সম্মান জ্ঞাপন। আর এই কারণেই ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়ালে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে অমর জওয়ান জ্যোতিকে।

প্রসঙ্গত, ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়ালটি অমর জওয়ান জ্যোতির বর্তমান স্থান থেকে ৪০০ মিটার দূরেই। স্বাধীনতা-পরবর্তী পর্যায়ে ভারতীয় সেনার আত্মবলিদানকে শ্রদ্ধা জানাতে ২০১৯-এর ২৫ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উদ্বোধন করেন এই স্মারক। এদিকে কেন্দ্রের জ্যোতি স্থানান্তরের নির্দেশে বেজায় চটেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। এদিন সকালেই টুইট করে কংগ্রেস নেতা লেখেন, ‘আমাদের বীর জওয়ানদের জন্য যে অমর জওয়ান জ্যোতি জ্বলত, তা আজ নিভিয়ে দেওয়া হবে৷ খুবই দুঃখের ব্যাপার৷ কিছু মানুষ দেশপ্রেম ও বলিদান বুঝতে পারে না৷ কোনও ব্যাপার নয়। আমরা আমাদের সৈনিকদের জন্য অমর জওয়ান জ্যোতি আবার জ্বালাব৷’

বন্ধ করুন