বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Covid 19: রাজ্যগুলিকে টেস্টিং বাড়িয়ে কোন তথ্য জানানোর নির্দেশ মাণ্ডব্যের?
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

Covid 19: রাজ্যগুলিকে টেস্টিং বাড়িয়ে কোন তথ্য জানানোর নির্দেশ মাণ্ডব্যের?

  • মঙ্গলবারের বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাফ জানিয়েছেন, রাজ্যে ভ্যাকসিনেশনের পরিসংখ্যান সহ যাবতীয় তথ্য কেন্দ্রকে জানাতে হবে।

ওমিক্রন ত্রাস ইতিমধ্যেই দেশের দৈনিক করোনা গ্রাফ এখনও পর্যন্ত লাখের নিচে নামেনি। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ৩ লাকের নিচে নেমেছে। করোনা পরিস্থিতিতে নজর রেখে দেশের বিভিন্ন রাজ্য়ের প্রতিনিধিদের সঙ্গে এদিন বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য। সেই বৈঠকে তিনি রাজ্যগুলিতে আরও বেশি করে করোনা টেস্টিং বাড়ানোর নির্দেশ দেন।

মঙ্গলবারের বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাফ জানিয়েছেন, রাজ্যে ভ্যাকসিনেশনের পরিসংখ্যান সহ যাবতীয় তথ্য কেন্দ্রকে জানাতে হবে। আজকের বৈঠকে জম্মু ও কাশ্মীর, হিমাচল প্রদেশ, পঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরাখণ্ড, দিল্লি, লাদাখ, উত্তরপ্রদেশ, চণ্ডিগড়ের স্বাস্থ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশ নেন মাণ্ডব্য। আজকের পর্যালোচনাধর্মী বৈঠকে, অতিমারীর মধ্যে জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিভিন্ন দিকের খোঁজ খবর নেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য। দেশের নয়টি রাজ্যে ভ্যাকসিনেশনের গতি কতটা তা নিয়েও প্রশ্ন করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী। বাড়িতে যাঁরা আইসোলেশনে রয়েছেন তাঁরা ই-সঞ্জিবনীর সাহায্য কতটা নিচ্ছেন তা নিয়েও রাজ্যের প্রতিনিধিদের সামনে প্রশ্ন তুলে ধরেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। উল্লেখ্য, সারা দেশে অতিমারী পরিস্থিতিতে রাজ্যগুলির অবস্থা জানতে একটি নির্দিষ্ট সময় পর পর পর্যালোচনা ধর্মী বৈঠকে বসেন মনসুখ মাণ্ডব্য। এর আগে, গোয়া, গুজরাত, দমন দিউ, মহারাষ্ট্র , মধ্যপ্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী তথা প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন মাণ্ডব্য।

এদিকে, শেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা ২,৫৫,৮৭৪ জন। শেষ ২৪ ঘণ্টার নিরিখে গতকালের রিপোর্টের থেকে আজকের রিপোর্টে ৫০ হাজারের বেশি আক্রান্তের সংখ্যায় কমতি রয়েছে। যা ওমিক্রন নির্ভর কোভিডের নতুন স্রোতের ক্ষেত্রে সুখকর বার্তা বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে, বিভিন্ন গবেষণায় দাবি করা হয়েছে যে, ভারতে জানুয়ারির শেষে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮ থেকে ১০ লাখ ছুঁতে পারে। তবে এখনও পর্যন্ত গ্রাফ সেদিকে নেই বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে কোনওরকমের ঝুঁকি নিতে নারাজ কেন্দ্র। ফলে রাজ্যগুলিকে ক্রমাগত টেস্টিং বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে। 

 

বন্ধ করুন