বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > প্রাক্তন উপরাষ্ট্রপতি আনসারির যোগ দেওয়া সভার আয়োজকরা SIMI, ISI-এর সঙ্গে যুক্ত! বড় অভিযোগ নকভির
হামিদ আনসারি
হামিদ আনসারি

প্রাক্তন উপরাষ্ট্রপতি আনসারির যোগ দেওয়া সভার আয়োজকরা SIMI, ISI-এর সঙ্গে যুক্ত! বড় অভিযোগ নকভির

  • হামিদ আনসারির বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বক্তব্য রাখার সময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা মুক্তার আব্বাস নকভি দাবি করেন, যে অনুষ্ঠানে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারি যোগ দিয়েছিলেন, তাদের আয়োজকদের সঙ্গে 'সিমি (স্টুডেন্ট ইসলামিক মুভমেন্ট অফ ইন্ডিয়া) ও আইএসআই-এর যোগ রয়েছে।'

১৭ টি মার্কিন মুসলিম সংগঠনগুলির উদ্যোগে ২৬ জানুয়ারি আয়োজিত হয় এক ভার্চুয়াল সভা। 'প্রটেক্টিং ইন্ডিয়াস প্লুরালিস্ট কনস্টিটিউশন' শীর্ষক এই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ভারতের প্রাক্তন উপ রাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারি। তাঁর বক্তব্যে, তিনি সাম্প্রতিককালে ভারতের মানাবাধিকার প্রসঙ্গে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। প্রাক্তন উপরাষ্ট্রপতি বলেন, 'নাগরিক জাতীয়তাবাদ' এর জায়গায় এসে গিয়েছে ' সাংস্কৃতিক জাতীয়তাবাদ'। আর এই প্রসঙ্গেই তাঁকে পাল্টা জবাব দিলেন, কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী মুক্তার আব্বাস নকভি।

হামিদ আনসারির বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বক্তব্য রাখার সময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা মুক্তার আব্বাস নকভি বলেন, যে অনুষ্ঠানে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারি যোগ দিয়েছিলেন, তাদের আয়োজকদের সঙ্গে 'সিমি (স্টুডেন্ট ইসলামিক মুভমেন্ট অফ ইন্ডিয়া) ও আইএসআই-এর যোগ রয়েছে।' যদিও অনুষ্ঠানের আয়োজকদের তরফে সেই দাবি বাতিল করা হচ্ছে। 

 

এদিকে এই ইস্যুতে বক্তব্য রেখে মুক্তার আব্বাস নকভি বলেন, 'এটা অবাক করা ঘটনা যে, এই একই ব্যক্তি এর আগে পিএফআই (পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া) এর প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করেছিলেন।' নকভি বলেন, 'এই ইন্দো আমেরিকান মুসলিম কাউন্সিলের যোগ রয়েছে সিমি ও আইএসআইয়ের সঙ্গে,যাতে তারা ভারত বিরোধী ও মোদী বিরোধী বার্তা দিতে পারে, এটাই এবারও করা হয়েছে।' তিনি বলেন, এক্ষেত্রে, যেকোনও মূল্যে মোদীকে আঘাত করতে গিয়ে ভারতকেও আঘাত করা হচ্ছে। একই সঙ্গে নকভি বলেন, 'দেশ সর্বদাই সহিষ্ণুতা ও নিরপেক্ষতার পথে এগিয়েছে। আমরা সাংস্কৃতিক জাতিয়তাবাদেও বিশ্বাস করি। '

উল্লেখ্য, এর আগে, ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারি প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন আমেরিকার ওই ভার্চুয়াল সভায় যোগ দিয়ে বলেন, ' কয়েক বছর ধরে আমরা এক ধরণের প্রবণতা দেখছি। তা হল, নাগরিক জাতীয়তাবাদ সরিয়ে রেখে সাংস্কৃতিক জাতীয়তাবাদ প্রতিষ্ঠা ককরার প্রবণতা।' একই সঙ্গে তিনি দেশের সাম্প্রতিক মানবাধিকারের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, 'ধর্মীয় বিশ্বাসের ভিত্তিতে নাগরিকদের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করা হচ্ছে। সামনে আসছে অসহিষ্ণু মানসিকতা, এক পক্ষের উপর কর্তৃত্ব করার চেষ্টা করা হচ্ছে।'

 

বন্ধ করুন