বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > নিজেদের কি ফাঁসিতে ঝোলাব? টিকার অভাব ইস্যুতে ধৈর্য হারালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সদানন্দ গৌড়া (ফাইল ছবি : পিটিআই)
কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সদানন্দ গৌড়া (ফাইল ছবি : পিটিআই)

নিজেদের কি ফাঁসিতে ঝোলাব? টিকার অভাব ইস্যুতে ধৈর্য হারালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

  • এবার ধৈর্য হারিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পালটা প্রশ্ন, টিকার অভাব থাকলে কি নিজেদের ফাঁসিতে ঝোলাব?

করোনা টিকার আকালের অভিযোগ এনে ক্রমাগত কেন্দ্রকে তোপ দেগেছেন বিরোধীরা। এই পরিস্থিতিতে এদিন ফের একবার করোনা টিকার অভাব নিয়ে প্রশ্ন করা হয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রী সদানন্দ গৌড়াকে। এই প্রেক্ষিতেই এবার ধৈর্য হারিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পাল্টা প্রশ্ন, টিকার অভাব থাকলে কি নিজেদের ফাঁসিতে ঝোলাব?

এদিন সংবাদমাধ্যমকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডিভি সদানন্দ গৌড়া বলেন, 'আদালত ভালো মনেই বলেছে যাতে দেশের সবাই করোনা টিকা পান। কিন্তু আমি আপনাকে প্রশ্ন করতে চাই, কাল যদি আদালত বলে যে এতগুলি ভ্যাকসিন দিতে হবে, কিন্তু সেই পরিমাণ টিকা উৎপাদন না হয়ে থাকে। তাহলে কি আমরা নিজেদের ফাঁসিতে ঝোলাব?'

এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরও বলেন, 'কিছু জিনিস আমাদের হাতে থাকে না। কীভাবে আমরা এই সমস্যা সমাধান করব?' তবে তিনি দাবি করেন যে কেন্দ্রীয় সরকার সবরকমের পদক্ষেপ নিচ্ছে টিকার অভাব মেটানোর জন্য। দেশের সমস্ত নাগরিককে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার দাবি তুলে গতকালও একটি মামলা দায়ের হয়েছে সুপ্রিমকোর্টে। এসডিপিআই-এর তরফে মামলাটি করেছেন আইনজীবী সেলভিন রাজা। মামলার আবেদন পত্রে বলে হয়েছে, ভারতের জনসংখ্যার একটা বড় অংশ গরিব মানুষ৷ তাদের বিনমূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া জরুরি৷ সেক্ষেত্রে বিপর্যয় কাটানো সম্ভব হবে৷

মামলার আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, সংবিধানের ২১ ধারা অনুযায়ী দেশের সমস্ত নাগরিক বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পাওয়ার অধিকারী৷ আইনজীবী সেলভিন রাজার আবেদনে আরও বলা হয়েছে, ভয়ঙ্কর মহামারীতে সঠিক সময় চিকিৎসা না পেয়ে মারা যাচ্ছে মানুষ৷ এখন দেশের মানুষের একমাত্র আশা ভ্যাকসিন৷ সিংহভাগ মানুষের পক্ষে সেই ভ্যাকসিন পয়সা দিয়ে কেনা কঠিন৷

বন্ধ করুন