বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে পুজোর মুখে ফের পশ্চিমবঙ্গে আসছে কেন্দ্রীয় দল
পিপিই কিট পরে স্যানিটাইজেশনের কাজ চলছে কলকাতার এক পুজো মণ্ডপে। ছবি সৌজন্য : পিটিআই (PTI)
পিপিই কিট পরে স্যানিটাইজেশনের কাজ চলছে কলকাতার এক পুজো মণ্ডপে। ছবি সৌজন্য : পিটিআই (PTI)

করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে পুজোর মুখে ফের পশ্চিমবঙ্গে আসছে কেন্দ্রীয় দল

  • শুধু এ রাজ্য নয়, কেন্দ্রের শীর্ষ আধিকারিকদের ওই দল যাবে কর্নাটক, কেরল, রাজস্থান ও ছত্তিশগড়ে। কারণ, এই কটি রাজ্যে মাথা ছাড়া দিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ।

করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে পুজোর মুখে পশ্চিমবঙ্গে ফের আসছে কেন্দ্রীয় দল। শুধু এ রাজ্য নয়, কেন্দ্রের শীর্ষ আধিকারিকদের ওই দল যাবে কর্নাটক, কেরল, রাজস্থান ও ছত্তিশগড়ে। কারণ, এই কটি রাজ্যে মাথা ছাড়া দিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। ভবিষ্যতে তা রুখতে এবং সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতেই কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল এই রাজ্যগুলিতে ঘুরবে বলে জানা গিয়েছে।

শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, করোনা সংক্রমণ রোধে বিভিন্ন দিক থেকে রাজ্যগুলিকে সাহায্য করবেন এই প্রতিনিধিরা। রাজ্যের কন্টেনমেন্ট ব্যবস্থা, সংক্রমণের ওপর নজরদারি, করোনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানোর ব্যাপারে পরামর্শ দিতে পারেন তাঁরা। করোনা সংক্রমণ রোধ ও তা নিয়ন্ত্রণে যা করণীয় সে ব্যাপারে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতেই রাজ্যে আসছে কেন্দ্রীয় দল। বিভিন্ন করোনা পজিটিভ ক্ষেত্রে কীরকম দক্ষতার সঙ্গে ক্লিনিকাল পরিচালনা করা উচিত, সে ব্যাপারেও মতামত দেবেন তাঁরা।

একইসঙ্গে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, কেন্দ্রীয় দলগুলি সঠিক সময়ে রোগ নির্ণয় এবং তার ফলো আপ সম্পর্কিত সমস্যাগুলি কার্যকরভাবে পরিচালনার ক্ষেত্রেও গাইড করবে। বেশিরভাহ ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, রোগ নির্ণয় হওয়ার আগেই অনেকের মারা গিয়েছেন করোনায়। মৃতের পর পরীক্ষা করিয়ে তা জানা গিয়েছে। এই সম্ভাবনা আগে থেকে যাতে আটকানো যায় তার উপায় বলবে কেন্দ্রীয় দল।

প্রতিটি দলে একজন যুগ্ম সচিব (সংশ্লিষ্ট রাজ্যের নোডাল অফিসার), জনস্বাস্থ্যের দিকগুলি দেখাশোনার জন্য একজন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ এবং রাজ্যে সংক্রমণ প্রতিরোধে কীরমক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বা ক্লিনিকাল ম্যানেজমেন্ট প্রোটোকল ঠিকঠাক পালন করা হচ্ছে কিনা তা দেখার জন্য থাকবেন একজন ক্লিনিশিয়ান।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার একদিনে পশ্চিমবঙ্গে খোঁজ মিলেছে ৩,৭২০ জন করোনা রোগীর। এদিনের সংক্রমণের ফলে পশ্চিমবঙ্গে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩,০৯,৪১৭। মোট সুস্থ, ২,৭১,৫৬৩। মোট মৃত্যু ৫,৮৭০। বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্ত অবস্থায় চিকিৎসাধীন ছিলেন ৩১,৯৮৪। এদিন রাজ্যে ৪২,৯০১টি করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। মোট পরীক্ষার সংখ্যা ৩৮.৫ লক্ষ ছাড়িয়েছে।পশ্চিমবঙ্গে করোনা রোগীদের জন্য নির্দিষ্ট শয্যার ৩৭.৮৮ শতাংশ পূর্ণ রয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য দফতরের মেডিক্যাল বুলেটিন।

বন্ধ করুন