বাড়ি > ঘরে বাইরে > বাড়ছে করোনা, PPE, ফেস শিল্ড, নির্দিষ্ট মাস্ক রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা কেন্দ্রের
পিপিই, ফেস শিল্ড ও নির্দিষ্ট ধরনের মাস্ক রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা কেন্দ্রের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
পিপিই, ফেস শিল্ড ও নির্দিষ্ট ধরনের মাস্ক রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা কেন্দ্রের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

বাড়ছে করোনা, PPE, ফেস শিল্ড, নির্দিষ্ট মাস্ক রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা কেন্দ্রের

  • তবে কয়েকটি সরঞ্জামের উপর থেকে রফতানির নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়া হয়েছে।

দেশে ক্রমশ উর্ধ্বমুখী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের গ্রাফ। এই অবস্থায় নন-মেডিক্যাল বা নন-সার্জিকাল ছাড়া যাবতীয় মাস্ক, পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইক্যুপমেন্ট (পিপিই), ফেস শিল্ড-সহ বিভিন্ন চিকিৎসাজনিত সরঞ্জামের রফতানির উপর নিষেধাজ্ঞা চাপাল কেন্দ্র।

মঙ্গলবার যাবতীয় চিকিৎসাজনিত সরঞ্জামের রফতানির নীতি সংশোধন করে। সেই সংশোধিত নিয়মের আওতায় এখন থেকে আর মেডিক্যাল নাইট্রাইল বা এনবিআর গ্লাভস, মেডিক্যাল গগলস (চিকিৎসকরা যে চশমা ব্যবহার করেন) বিদেশে রফতানি করা যাবে না। 

কেন্দ্রের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, 'পিপিই বা মাস্কের রফতানি নীতি সংশোধন করেছে সরকার। সব ধরনের চিকিৎসাজনিত সরঞ্জাম - মেডিক্যাল গগলস, নন-মেডিক্যাল বা নন-সার্জিকাল ছাড়া সব মাস্ক, মেডিক্যাল নাইট্রাইল বা এনবিআর গ্লাভস এবং ফেস শিল্ড রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে।'  

তবে কয়েকটি সরঞ্জামের উপর থেকে রফতানির নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়া হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, গত ২২ জুন যে বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল, তা সংশোধন করে নিষিদ্ধ তালিকা থেকে সার্জিকাল ড্রেপ, আইসোলেশন অ্যাপ্রন, সার্জিকাল র‌্যাপ এবং এক্স-রে গাউনকে বাদ দেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, মঙ্গলবার সকাল আটটা পর্যন্ত ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১,১৫৫,১৯১। সবমিলিয়ে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৮,৮০৪ জনের। সেরে উঠেছেন ৭২৪,৫৭৭ জন করোনা রোগী।

বন্ধ করুন