বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘সংবেদনশীল তথ্য’ প্রকাশের জন্য প্রাক্তন নিরাপত্তা অফিসারদের লাগবে অনুমতি, নির্দেশ কেন্দ্রের
অনুমতি ছাড়া ‘সংবেদনশীল তথ্য’ প্রকাশ করতে পারবেন না প্রাক্তন নিরাপত্তা অফিসাররা, নির্দেশ কেন্দ্রের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
অনুমতি ছাড়া ‘সংবেদনশীল তথ্য’ প্রকাশ করতে পারবেন না প্রাক্তন নিরাপত্তা অফিসাররা, নির্দেশ কেন্দ্রের (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

‘সংবেদনশীল তথ্য’ প্রকাশের জন্য প্রাক্তন নিরাপত্তা অফিসারদের লাগবে অনুমতি, নির্দেশ কেন্দ্রের

  • সেই নির্দেশের জন্য ইতিমধ্যে ১৯৭২ সালে কেন্দ্রীয় সিভিল সার্ভিস সার্ভিসেস (পেনশন) রুলসেও সংশোধনী এনেছে কেন্দ্র।

সরকারি গোয়েন্দা সংস্থার অবসরপ্রাপ্ত আধিকারিকদের জন্য কড়া বিধিনিষেধ জারি করল কেন্দ্র। যা নিরাপত্তা সংক্রান্ত সংস্থায় কাজ করা প্রাক্তন আধিকারিকদের ক্ষেত্রেও প্রয়োজ্য হবে। কেন্দ্রের তরফে গেজেট নোটিফিকেশন জারি করে জানানো হল, অনুমতি ছাড়া অবসরগ্রহণের পর সরকারি গোয়েন্দা সংস্থা বা নিরাপত্তা সংক্রান্ত সংস্থার আধিকারিকরা সংশ্লিষ্ট সংস্থা সংক্রান্ত কোনও বিষয় বা ‘সংবেদনশীল তথ্য’ প্রকাশ করতে পারবেন না। 

সেই নির্দেশের জন্য ইতিমধ্যে ১৯৭২ সালে কেন্দ্রীয় সিভিল সার্ভিস সার্ভিসেস (পেনশন) রুলসেও সংশোধনী এনেছে কেন্দ্রের কর্মীবর্গ এবং প্রশিক্ষণ দফতর। গত ৩১ মে'র গেজেট নোটিফিকেশনে বলা হয়েছে, ‘২০০৫ সালের তথ্য প্রযুক্তি আইনের দ্বিতীয় তফসিলের অন্তর্গত গোয়েন্দা বা নিরাপত্তা সংক্রান্ত সংস্থায় কাজ করা কোনও সরকারি চাকুরে সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রধানের অনুমতি ছাড়া অবসর গ্রহণের পর কোনও আধিকারিক সম্পর্কিত তথ্য ও তাঁর পদ, নিজে কাজ করার সুবাদে যে অভিজ্ঞতা বা জ্ঞান-সহ সংশ্লিষ্ট সংস্থার কোনও তথ্য প্রকাশ করতে পারবেন না।’

একইসঙ্গে ‘সংবেদনশীল তথ্য’ প্রকাশ করা থেকেও আধিকারিকদের বিরত থাকতে বলেছে কেন্দ্র। যা ভারতের সার্বভৌমত্ব, অখণ্ডতা, সুরক্ষা, কৌশলগত-বৈজ্ঞানিক-অর্থনৈতিক স্বার্থ বা বিদেশি রাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে পারে বা কোনও অপরাধের ক্ষেত্রে প্ররোচনা জোগাতে পারে। কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, যদি অবসর গ্রহণের পর কোনও আধিকারিক কোনও তথ্য প্রকাশের অনুমতি চেয়ে আবেদন করেন, তাহলে সেই অনুমতি গ্রাহ্য হবে কিনা, তা নির্ধারণ করবেন সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রধান। যে সংস্থায় ওই আধিকারিক কাজ করতেন। ওই সংস্থার প্রধানই সিদ্ধান্ত নেবেন, বিষয়টি ‘সংবেদনশীল’ কিনা।

বন্ধ করুন