বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > করোনার বাড়বাড়ন্তে করদাতাদের জন্য স্বস্তির খবর, একাধিক ক্ষেত্রে বাড়ল সময়সীমা
করোনার বাড়বাড়ন্তে করদাতাদের জন্য স্বস্তির খবর, একাধিক ক্ষেত্রে বাড়ল সময়সীমা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)
করোনার বাড়বাড়ন্তে করদাতাদের জন্য স্বস্তির খবর, একাধিক ক্ষেত্রে বাড়ল সময়সীমা। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য মিন্ট)

করোনার বাড়বাড়ন্তে করদাতাদের জন্য স্বস্তির খবর, একাধিক ক্ষেত্রে বাড়ল সময়সীমা

  • দেশজুড়ে লাগামহীন করোনার সংক্রমণের জেরে এই সিদ্ধান্ত।

করোনাভাইরাসের বাড়বাড়ন্তে 'বিবাদ সে বিশ্বাস' প্রকল্পে টাকা দেওয়ার মেয়াদ দু'মাস বাড়িয়ে দিল কেন্দ্র। প্রত্যক্ষ কর সংক্রান্ত বিবাদ মেটানোর প্রকল্পের সময়সীমা বাড়িয়ে আগামী ৩০ জন পর্যন্ত করা হয়েছে। সেজন্য বাড়তি কোনও টাকা দিতে হবে না। সেইসঙ্গে কর সংক্রান্ত আরও কয়েকটি বিষয়ের সময়সীমাও পিছিয়ে দিয়েছে কেন্দ্র। বিভিন্ন বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আগে সেগুলির সময়সীমা ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়েছিল।

শনিবার আয়কর দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, দেশজুড়ে লাগামহীন করোনার সংক্রমণ এবং করদাতা, কর বিশেষজ্ঞ ও বিভিন্ন পক্ষের আর্জির ভিত্তিতে 'বিবাদ সে বিশ্বাস' প্রকল্পের বিষয়ের সময়সীমা বাড়িয়ে ৩০ জুন পর্যন্ত করা হয়েছে। সেইসঙ্গে কর আধিকারিকের দ্বারা আর্থিক মূল্যায়ন পুনরায় চালুর জন্য নোটিশের জারির শেষদিনের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। যে ক্ষেত্রে আয়ের মূল্যায়ন হয়নি।

এমনিতে গত বছর ১৭ মার্চ থেকে চালু হয়েছে ভারতের অন্যতম সফল 'বিবাদ সে বিশ্বাস' প্রকল্প। সেই প্রকল্পের মাধ্যমে ১.৪৮ লাখের বেশি মামলার সমাধান করা হয়েছে এবং আইনি জটে আটকে থাকা এক লাখ কোটি টাকার ৫৪ শতাংশ উদ্ধার করা হয়েছে। চলতি বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত সেই প্রকল্প চলার কথা ছিল। যাঁরা সেই সময়ের মধ্যে ঘোষণাপত্র দিয়েছিলেন, তাঁরা ৩০ জুন পর্যন্ত কোনও অতিরিক্ত অর্থ বা জরিমানা ছাড়াই টাকা জমা দিতে পারবেন। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সেই প্রকল্পের আওতায় ১৩৩,৮৩৭ আবেদন জমা পড়েছে। আইনি জটে আটকে ছিল মোট ১০০,৪৩৭ কোটি টাকা। তার মধ্যে ৫৪,০০৫ কোটি টাকা উদ্ধার করেছে কেন্দ্র।

বন্ধ করুন