বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > একাধিক খারিফ শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ৫০-৬২ শতাংশ বৃ্দ্ধি কেন্দ্রের
৫০-৬২ শতাংশ খারিফ শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বৃ্দ্ধি কেন্দ্রেরর: ‌ছবিটি প্রতীকী (REUTERS)
৫০-৬২ শতাংশ খারিফ শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বৃ্দ্ধি কেন্দ্রেরর: ‌ছবিটি প্রতীকী (REUTERS)

একাধিক খারিফ শস্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ৫০-৬২ শতাংশ বৃ্দ্ধি কেন্দ্রের

বুধবার মন্ত্রিসভায় কেন্দ্রের এই প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে।

খারিফ শষ্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। বুধবার মন্ত্রিসভায় এই প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। খারিফ শস্যের ন্যূনতম ৫০ শতাংশ থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৬২ শতাংশ পর্যন্ত সহায়ক মূল্য বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মন্ত্রিসভায় এই প্রস্তাব পেশ করা হয়। বিভিন্ন খারিফ শস্যের ন্যূনতম সহায়ক বিক্রয় মূল্য বাড়িয়ে ৫০ শতাংশ থেকে ৬২ শতাংশের মধ্যে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার পরেই মন্ত্রিসভা এই কেন্দ্রের প্রস্তাবিত সিদ্ধান্তকে সবুজ সংকেত দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের মার্চ মাসে কৃষি মন্ত্রকের তরফে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ২০২১-২২ মরশুমে ধানের মতো গ্রীষ্মের খরিফ শস্য ৫৬.৫০ লক্ষ হেক্টর জমিজুড়ে চাষ করা হয়েছে। সাধারণত কৃষকেরা শীতকালে রবি শস্য তোলার পর খরিফ শস্য চাষ করা শুরু করেন। এই ধরনের শস্য বর্ষাকালেও চাষ করা শুরু হয়। বিশেষ করে জুন মাসে দক্ষিণ ও পশ্চিম রাজ্যগুলোতে বর্ষা শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এই ধরনের চাষ শুরু করা হয়। কৃষি মন্ত্রকের এই তথ্য অনুয়ায়ী চলতি বছরের খরিফ মরশুমে ৩৬.৮৭ লক্ষ হেক্টর জমিতে ধান চাষ করা হয়েছে। যার পরিমাণ গত ২০২০-২১ সালের চেয়ে ৫.২৫ লক্ষ হেক্টর বেশি।

বন্ধ করুন