বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ব্যাকফুট পাঞ্চে বাতিল হবে তিন কৃষি আইন, সংসদে এবার ঝড় তুলতে বিদ্যুৎ-ব্যাঙ্ক বিল
সংসদ ভবন, ফাইল ছবি (HT_PRINT)
সংসদ ভবন, ফাইল ছবি (HT_PRINT)

ব্যাকফুট পাঞ্চে বাতিল হবে তিন কৃষি আইন, সংসদে এবার ঝড় তুলতে বিদ্যুৎ-ব্যাঙ্ক বিল

  • শীতকালীন অধিবেশনে মোট ২৬টি বিল পাশ করাতে সংসদে প্রস্তাব পেশ করবে কেন্দ্র।

দীর্ঘ প্রায় একবছর ধরে কৃষকদের সঙ্গে টানাপোড়েনের পর শেষমেষ কৃষি আইন বাতিলের পথে হাঁটছে কেন্দ্র। বিতর্কিত এই আইন বাতিলের জন্য সংসদ অধিবেশনের প্রথম দিনই প্রস্তাব আনতে পারে কেন্দ্র। এই আইন নিয়ে জটিলতা কাটার ইঙ্গিত মিললেও এবার ঝড়ের আভাস মিলল অন্য বিল নিয়ে। শীতকালীন অধিবেশনে মোট ২৬টি বিল পাশ করাতে প্রস্তাব পেশ করবে কেন্দ্র। সেই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছে ব্যাঙ্ক থেকে বিদ্যুৎ সংক্রান্ত বিল, যা নিয়ে এবার ঝড় উঠতে পারে সংসদে।

ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত যে সংশোধনী বিলটি কেন্দ্র পেশ করতে চলেছে সংসদে, তা পাশ হলে ব্যাঙ্কের বেসরকারিকরণের পথ সুগম হবে। ১৯৭০ ও ১৯৮০ সালের ব্যাঙ্ক জাতীয়করণের দু’টি আইন এবং ১৯৪৯-এর ব্যাঙ্ক নিয়ন্ত্রণ আইনের সংশোধনী আনা হবে এই শীতকালীন অধিবেশনে। আর এই সংশোধনী বিলের বিরোধিতায় ইতিমধ্যেই সুর চড়াতে শুরু করেছেন ব্যাঙ্ক কর্মীরা।

এদিকে শীতকালীন অধিবেশনেই দা ক্রিপ্টোকারেন্সি অ্যান্ড রেগুলেশন অব অফিশিয়াল ডিজিটাল কারেন্সি বিল, ২০২১ আনতে চলেছে কেন্দ্র। বিলটিতে ভারতে সমস্ত প্রাইভেট ক্রিপ্টোকারেন্সি নিষিদ্ধ করার দিকে জোর দেওয়া হয়েছে। তবে ক্রিপ্টোপ্রযুক্তি এবং এর ব্যবহারের প্রচার করার জন্য কিছুক্ষেত্রে ব্যতিক্রমের অনুমতিও দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি আরবিআই দ্বারা অনুমোদিত এক ডিজিটাল মুদ্রা তৈরির জন্য একটি উপযুক্ত এবং সুবিধাজনক কাঠামো তৈরি কথাও উল্লেখ রয়েছে বিলে।

এদিকে কেন্দ্র এই সংসদীয় অধিবেশনে আনতে চলেছে বিদ্যুৎ সংশোধনী বিলও। দেশে বিদ্যুৎক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা বৃদ্ধির জন্য সংসদে বিদ্যুৎ সংশোধনী বিল আনতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই বিল পাশ হলে দেশের যে কোনও জায়গায় যে কোনও সংস্থা বিদ্যুৎবণ্টন করতে পারবে। শেষ হবে বিদ্যুৎবণ্টনে লাইসেন্স প্রথা। তবে এই বিলের বিরোধিতা করে গত অগস্টেই প্রধানমন্ত্রী মোদীকে চিঠি লিখেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, এই বিল রাজ্যের অধিকারকে খর্ব করে। তাই এই বিল যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর বিরোধী।

দীর্ঘ প্রায় একবছর ধরে কৃষকদের সঙ্গে টানাপোড়েনের পর শেষমেষ কৃষি আইন বাতিলের পথে হাঁটছে কেন্দ্র। বিতর্কিত এই আইন বাতিলের জন্য সংসদ অধিবেশনের প্রথম দিনই প্রস্তাব আনতে পারে কেন্দ্র। এই আইন নিয়ে জটিলতা কাটার ইঙ্গিত মিললেও এবার ঝড়ের আভাস মিলল অন্য বিল নিয়ে। শীতকালীন অধিবেশনে মোট ২৬টি বিল পাশ করাতে প্রস্তাব পেশ করবে কেন্দ্র। সেই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছে ব্যাঙ্ক থেকে বিদ্যুৎ সংক্রান্ত বিল, যা নিয়ে এবার ঝড় উঠতে পারে সংসদে।

ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত যে সংশোধনী বিলটি কেন্দ্র পেশ করতে চলেছে সংসদে, তা পাশ হলে ব্যাঙ্কের বেসরকারিকরণের পথ সুগম হবে। ১৯৭০ ও ১৯৮০ সালের ব্যাঙ্ক জাতীয়করণের দু’টি আইন এবং ১৯৪৯-এর ব্যাঙ্ক নিয়ন্ত্রণ আইনের সংশোধনী আনা হবে এই শীতকালীন অধিবেশনে। আর এই সংশোধনী বিলের বিরোধিতায় ইতিমধ্যেই সুর চড়াতে শুরু করেছেন ব্যাঙ্ক কর্মীরা।

এদিকে শীতকালীন অধিবেশনেই দা ক্রিপ্টোকারেন্সি অ্যান্ড রেগুলেশন অব অফিশিয়াল ডিজিটাল কারেন্সি বিল, ২০২১ আনতে চলেছে কেন্দ্র। বিলটিতে ভারতে সমস্ত প্রাইভেট ক্রিপ্টোকারেন্সি নিষিদ্ধ করার দিকে জোর দেওয়া হয়েছে। তবে ক্রিপ্টোপ্রযুক্তি এবং এর ব্যবহারের প্রচার করার জন্য কিছুক্ষেত্রে ব্যতিক্রমের অনুমতিও দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি আরবিআই দ্বারা অনুমোদিত এক ডিজিটাল মুদ্রা তৈরির জন্য একটি উপযুক্ত এবং সুবিধাজনক কাঠামো তৈরি কথাও উল্লেখ রয়েছে বিলে।

এদিকে কেন্দ্র এই সংসদীয় অধিবেশনে আনতে চলেছে বিদ্যুৎ সংশোধনী বিলও। দেশে বিদ্যুৎক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা বৃদ্ধির জন্য সংসদে বিদ্যুৎ সংশোধনী বিল আনতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই বিল পাশ হলে দেশের যে কোনও জায়গায় যে কোনও সংস্থা বিদ্যুৎবণ্টন করতে পারবে। শেষ হবে বিদ্যুৎবণ্টনে লাইসেন্স প্রথা। তবে এই বিলের বিরোধিতা করে গত অগস্টেই প্রধানমন্ত্রী মোদীকে চিঠি লিখেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, এই বিল রাজ্যের অধিকারকে খর্ব করে। তাই এই বিল যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর বিরোধী।

|#+|

 

বন্ধ করুন