বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বাধ্যতামূলক নয় এই কাজ, বিদেশ থেকে আগত যাত্রীদের জন্য এই নিয়ম শিথিল কেন্দ্রের
বিদেশ থেকে আগত যাত্রীদের ক্ষেত্রে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়ম শিথিল করল কেন্দ্র। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

বাধ্যতামূলক নয় এই কাজ, বিদেশ থেকে আগত যাত্রীদের জন্য এই নিয়ম শিথিল কেন্দ্রের

  • ‘যদি (ভারতে) আসার পর যাত্রীদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তাহলে তাঁদের নমুনা জিনোম টেস্টিংয়ের জন্য ইনসাকফ ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হবে।’

বিদেশ থেকে আগত যাত্রীদের ক্ষেত্রে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়ম শিথিল করল কেন্দ্র। আজ (শনিবার) থেকে তাঁদের বাধ্যতামূলকভাবে করোনাভাইরাস আইসোলেশন কেন্দ্রে থাকতে হবে না। অর্থাৎ বিদেশ থেকে আগত যে যাত্রীদের রিপোর্ট পজিটিভ আসবে, তাঁদের বাধ্যতামূলকভাবে করোনাভাইরাস আইসোলেশন কেন্দ্রে থাকার প্রয়োজন নেই। ওই যাত্রীরা করোনা বিধি মেনে বাড়িতেও থাকতে পারবেন।

কেন্দ্রের সংশোধিত নির্দেশিকা অনুযায়ী, বিদেশ থেকে আগত যে যাত্রীদের করোনা ধরা পড়েছে, তাঁদের রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও বাড়িতে তাঁদের আইসোলেশনে থাকতে হবে। তাঁদের নিভৃতবাস পর্ব ন্যূনতম সাতদিন চলবে। ভারতে আসার অষ্টম দিনে তাঁদের আরটি-পিসিআর পরীক্ষা করতে হবে। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, ‘যদি (ভারতে) আসার পর যাত্রীদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তাহলে তাঁদের নমুনা জিনোম টেস্টিংয়ের জন্য ইনসাকফ ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হবে।’

আগের নির্দেশিকা অনুযায়ী, ‘ঝুঁকির মুখে’ থাকা দেশগুলি-সহ যে কোনও দেশ থেকে আগত যাত্রীদের কোনও আইসোলেশন কেন্দ্রে নিভৃতবাসে থাকতে হত। নির্দিষ্ট প্রোটোকল অনুযায়ী, তাঁদের চিকিৎসা করা হত। সংশোধিত নির্দেশিকায় সেই বিষয়টি শিথিল করা হয়েছে। তবে বিমানবন্দরে পরীক্ষার সময় যে যাত্রীদের উপসর্গ ধরা পড়বে, তাঁদের আলাদা করে দেওয়া হবে এবং কোনও স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হবে। যদি রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তাঁদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের চিহ্নিত করবে কর্তৃপক্ষ। তারপর করোনা বিধি মেনে বিভিন্ন ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

বন্ধ করুন