বাড়ি > ঘরে বাইরে > দিল্লির হোম কোয়ারেন্টাইন নীতি বদলে সংক্রমণ বাড়বে, বইজলের নির্দেশে পালটা যুক্তি কেজরির
লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বইজলের নির্দেশের বিরোধিতা করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।
লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বইজলের নির্দেশের বিরোধিতা করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

দিল্লির হোম কোয়ারেন্টাইন নীতি বদলে সংক্রমণ বাড়বে, বইজলের নির্দেশে পালটা যুক্তি কেজরির

  • নতুন নির্দেশ কার্যকর হলে লোক হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকার ভয়ে করোনা পরীক্ষা এড়িয়ে চলবে বলে দাবি মুখ্যমন্ত্রীর।

রাজধানীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রত্যেক বাসিন্দাকে হাসপাতালে ৫ দিনের বাধ্যতামূলক আইসোলেশনে রাখা নিয়ে লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বইজলের নির্দেশের বিরোধিতা করলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

শনিবার দুপুরে দিল্লির বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের সঙ্গে বৈঠকে বইজলের নির্দেশের বিরুদ্ধে মন্তব্য করেন কেজরিওয়াল। তিনি বলেন, এই নির্দেশের জেরে মাঝারি ও গুরুতর সংক্রমণে আক্রান্তদের পরিবর্তে মৃদু ও উপসর্গহীন রোগীরাই বেশি গুরুত্ব পাবেন। 

বৈঠকে উপস্থিত লেফটেন্যান্ট গভর্নরকে কেজরিওয়াল প্রশ্ন করেন, ‘এই সময় আমাদের দরকার সুস্থতার হার বাড়ানো এবং মৃত্যুহার কমানোর। সে ক্ষেত্রে সংকটাপন্ন রোগীদের প্রতি বেশি গুরুত্ব আরোপ করা উচিত না কি মৃদু উপসর্গ ও উপসর্গহীনদের দিকে নজর বাড়ানো দরকার?’ 

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, যেখানে ICMR মৃদু উপসর্গ ও উপসর্গহীনদের বাড়িতে বিচ্ছিন্ন থাকার নিদান দিচ্ছে, সেখানে দিল্লিতে ভিন্ন নিয়ম পালন করা হবে কেন? বইজলকে তিনি বলেন, এর পর লোকে হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকার ভয়ে করোনা পরীক্ষা এড়িয়ে চলবে।

শুক্রবার দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর রাজধানীর কোয়ারেন্টাইন নীতি পরিবর্তনে নতুন নির্দেশ জারি করেন।  তিনি বলেন, ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রত্যেক ব্যক্তির পাঁচ দিন হাসপাতালে আইসোলেশ বাধ্যতামূলক করা হবে এবং তার পরে ফের হোম আইসোলেশনে ফেরত পাঠানো হবে। তবে যাঁদের শারীরিক সমস্যা বাড়বে, তাঁদের হাসপাতাল বাসের মেয়াদ বাড়তে পারে।’

এই নির্দেশ জারির কয়েক ঘণ্টা আগে দিল্লি সরকারকে করোনা আক্রান্তদের ক্ষেত্রে হোম আইসোলেশন পদ্ধতি বন্ধ করার নির্দেশ দেয় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। প্রসঙ্গত, দিল্লিতে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৫০,০০০ এর কাছাকাছি পৌঁছেছে। তবে পাশাপাশি সুস্থতার হারও ২% বেড়েছে।

বন্ধ করুন