বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিগ্রহ, POCSO আইনে ধৃত চেন্নাইয়ের এক স্কুল শিক্ষক
POCSO আইনে ধৃত চেন্নাইয়ের এক স্কুল শিক্ষক
POCSO আইনে ধৃত চেন্নাইয়ের এক স্কুল শিক্ষক

একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিগ্রহ, POCSO আইনে ধৃত চেন্নাইয়ের এক স্কুল শিক্ষক

  • একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিগ্রহ করার অভিযোগ স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

একাধিক ছাত্রীকে যৌন নিগ্রহ করার অভিযোগ স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই চেন্নাইতে গ্রেফতার করা হল সেই স্কুল শিক্ষককে। জানা গিয়েছে ধৃত স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা রুজু করেছে পুলিশ। এই বিষয়টি হিন্দুস্তান টাইমসের কাছে নিশ্চিত করেছেন চেন্নাইয়ের পুলিশ কমিশনার শঙ্কর জয়সওয়াল।

জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয় অশোক নগর মহিলা পুলিশ স্টেশনের তরফে। ধৃত স্কুল শিক্ষককে আদালতে পেশ করা হয় মঙ্গলবার। মামলার শুনানির পর তাকে বিচারবিভাগীয় হেপাজতে পাঠানো হয়। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে পকসো আইনের ১১ এবং ১২ নম্বর ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। তাছাড়া ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪(এ) এবং ৫০৯ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে তার বিরুদ্ধে।

জানা গিয়েছে ধৃত শিক্ষকের স্কুলের এক প্রাক্তনী এই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছিলেন। তারপরই সেই অভিযোগটি ভাইরাল হয়ে যায়। এরপর সেই স্কুলের ১০০০ জন প্রাক্তনী স্কুল কর্তৃপক্ষকে সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার আর্জি জানান। একের পর এক ছাত্রী সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মুখ খুলতে শুরু করেন। স্কুল কর্তৃপক্ষকে অভিযোগ জানানো হয়।

এরপর প্রাক্তনী অভিযোগ করে যে অভিযোগ পাওয়ার পরও স্কুলের তরফে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি এই বিষয়ে। যদিও স্কুলের তরফে জানানো হয় যে তারা কোনও অভিযোগ পায়নি। তবে স্বতপ্রণোদিত হয়ে নাকি সেই স্কুল শিক্ষককে সাসপেন্ড করা হয়। জানা গিয়েছে ২০ বছর ধরে স্কুলে পডা়নো সেই শিক্ষক দ্বাদশ শ্রেণীতে কমার্স এবং অ্যাকাউন্টেন্সি পড়াতেন।

ছাত্রীদের অভিযোগ, মেয়েদের দেহ নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করত অভিযুক্ত শিক্ষক। অনলাইন ক্লাস চলাকালীন নাকি শুধু তোয়ালে জড়িয়ে ছাত্রীদের মুভিতে যাওয়ার আমন্ত্রণও জানিয়েছেন তিনি। এরপর ছাত্রীরা স্কুলে অভিযোগ জানিয়েছিল। ইনস্টাগ্রামেও শিক্ষকের সেই অবস্থার স্ক্রিনশট পোস্ট করা হয়েছিল।

বন্ধ করুন