বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘এতেই দেশের মঙ্গল’, BJP-কে ঠেকাতে ‘বন্ধু’ মমতাকে সঙ্গে চান কংগ্রেস নেতা চিদম্বরম
 প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম (ফাইল ছবি, সৌজন্য মিন্ট)
 প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম (ফাইল ছবি, সৌজন্য মিন্ট)

‘এতেই দেশের মঙ্গল’, BJP-কে ঠেকাতে ‘বন্ধু’ মমতাকে সঙ্গে চান কংগ্রেস নেতা চিদম্বরম

  • চিদম্বরমের কথায়, ‘মমতা আমার বন্ধু। আমি তাঁকে ২০-২৫ বছর ধরে চিনি। কংগ্রেস ও তৃণমূলের ভিন্ন দুটি পন্থা একত্রিত হতে পারলে দেশের জন্য ভালো হবে।’

বিজেপিকে রুখতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দলে চাইছেন কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরম। বৃহস্পতিবার গোয়ায় এমনটাই জানালেন দেশের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। চিদম্বরমের কথায়, ‘মমতা আমার বন্ধু। আমি তাঁকে ২০-২৫ বছর ধরে চিনি। তিনি একটি বিশেষ দৃষ্টিভঙ্গিতে এগোচ্ছেন। এদিকে আমাদের একটি পদ্ধতি রয়েছে। দুটি পন্থা একত্রিত হতে পারলে দেশের জন্য ভালো হবে।’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি তৃণমূল সুপ্রিমো বিজেপিকে যত না তোপ দেগেছেন, তার থেকে বেশি তোপ দেগেছেন কংগ্রেসকে। মুম্বই সফরে গিয়ে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএর অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। তবে কংগ্রেস বিহীন বিরোধী জোট গড়ার মমতার এই পরিকল্পনায় আপাতত সায় নেই প্রায় কোনও বিরোধী দলেরই।

এদিকে সম্প্রতি গোয়ায় কংগ্রেসের সঙ্গে জোট বাঁধা প্রসঙ্গে মন্তব্য করেছিলেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত। তিনি সম্প্রতি কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সঙ্গে দেখা করেন। তারপরই সঞ্জয় জানান, উত্তরপ্রদেশ ও গোয়ায় সেনা কংগ্রেসের সঙ্গে জোট বাঁধতে পারে। তাঁর এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রশ্ন করা হলে চিদম্বরম বলেন, ‘আমি সঞ্জয় রাউতের বক্তব্য পড়েছি, আমার মনে হয় তিনি খুব দায়িত্বশীল বক্তব্য দিয়েছেন। রাউত যা বলেছেন তা হল আমাদের দেশে একটি অ-বিজেপি বিরোধী জোট দরকার এবং কংগ্রেসকে অবশ্যই সেই জোটের নেতৃত্ব দিতে হবে এবং সমস্ত ইউপিএ অংশীদারদের একত্রিত করতে হবে। আমি মনে করি এটি একটি খুব বুদ্ধিমান বিবৃতি। আমি সঞ্জয় রাউতের সঙ্গে সম্পূর্ণ একমত। আমি মনে করি এটা সঠিক উদ্যোগ। আমরা চেষ্টা করতে প্রস্তুত কিন্তু দুই হাতে তালি বাজাতে হবে।’ 

গোয়ার দায়িত্বপ্রাপ্ত পর্যবেক্ষক চিদম্বরম জানান যে শীঘ্রই গোয়া বিধানসভা নির্বাচনের জন্য কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে। প্রসঙ্গত, চিদম্বরম মমতাকে সঙ্গে নেওয়ার কথা বললেও গোয়ায় কংগ্রেস ভেঙেই নিজের দল ভারী করতে ব্যস্ত মমতা। আগামী ১৩ জিসেম্বর অভিষেককে সঙ্গে নিয়ে গোয়ায় যাওয়ার কথা মমতার। তার আগে অবশ্য প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর গোয়া সফর করার কথা।রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মত, এই ভাবে তৃণমূল বনাম কংগ্রেসে রাজনৈতিক ভাবে লাভবান হচ্ছে গেরুয়া শিবির।

বন্ধ করুন