বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Tattoo: নাবালকরা আর করতে পারবেনা ট্যাটু, জারি নিষেধাজ্ঞা! কোন কারণে এমন পদক্ষেপে এই দেশটিতে?
নাবালকদের ট্যাটু নিষিদ্ধ করল চিন। প্রতীকী ছবি।  (AP Photo/Bernat Armangue) (AP)

Tattoo: নাবালকরা আর করতে পারবেনা ট্যাটু, জারি নিষেধাজ্ঞা! কোন কারণে এমন পদক্ষেপে এই দেশটিতে?

  • জানানো হয়েছে, কোনও দোকানে যদি নাবালকদের ট্যাটু করা হচ্ছে এমন দেখা যায়, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কড়া আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। চিনের তরফে এক বিবৃতিতে এও জানানো হয়েছে যে, যে সমস্ত নাবালকের দেহে ট্য়াটু রয়েছে আর তারা তা মুছে ফেলতে চায়, তাদের প্রয়োজনীয় মেডিক্যাল সাহায্য দেওয়া হবে।

সুতীর্থ পত্রনবীশ

দেশের নাবালকরা শরীরে ট্য়াটু করতে পারবে না। সোমবার একথা সাফ জানিয়ে দিয়েছে চিন। সেদেশের নাবালকদের ক্ষেত্রে এই নয়া নিয়ম চালু হয়েছে। কেন আচমকা এমন সিদ্ধান্ত? এর উত্তরে জিনপিং-এর দেশ জানাচ্ছে নাবালকরা ট্যাটু করলে তাতে 'সামাজিক মূল আদর্শ' নষ্ট হয়।

চিনের প্রশাসনের তরফে সেদেশের সমস্ত স্কুল ও পরিবারকে নাবালকদের ট্যাটু করা থেকে রোখার কথা বলা হয়েছে। জানানো হয়েছে, কোনও দোকানে যদি নাবালকদের ট্যাটু করা হচ্ছে এমন দেখা যায়, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কড়া আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। চিনের তরফে এক বিবৃতিতে এও জানানো হয়েছে যে, যে সমস্ত নাবালকের দেহে ট্য়াটু রয়েছে আর তারা তা মুছে ফেলতে চায়, তাদের প্রয়োজনীয় মেডিক্যাল সাহায্য দেওয়া হবে। নাবালকদের প্রতি ব্যক্তিগত সহযোগিতা খাতে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। চিনের মন্ত্রিসভার তরফে এই পদক্ষেপ গৃহিত হয়েছে। ঝগড়ার পর রাস্তায় গতিতে এসে বাইককে ধাক্কা স্কর্পিওর! হাড়হিম করা ফুটেজ ভাইরাল

সাফ বার্তায় বলা হয়েছে, কোনও সংস্থা, প্রতিষ্ঠান বা বা ব্যক্তি যেন নাবালকদের ট্যাটু পরিষেবা না দেয়। এর আগে চিনের প্রাণকেন্দ্র সাংহাই জানিয়েছিল যে সেখানে ১৮ বছরের কমের বয়সীরা কেউ দেহে ট্যাটু করতে পারবে না। এরপরই এমনই সিদ্ধান্তের পথে হাঁটে চিন। এক বিবৃতিতে সাংহাই প্রশাসন জানায়, '১৮ বছর বয়সের নিচে কেউ কসমেটিক সার্জারি করতে পারবে না যদি না তাদের অভিভাবকদের সহমত থাকে।' এদিকে ট্যাটুর বিষয়ে বেশ সতর্ক পদক্ষেপ চিনের। গত ডিসেম্বরেই সেখানে জাতীয় ফুটবল দলের সদস্যদের বলা হয়েছিল যে হয় তাঁদের শরীরে করা ট্যাটু ঢেকে ফেলতে হবে নয়তো মুছতে হবে। যাতে সকলের কাছে ভাল 'উদাহরণ' যায়, তার জন্যই এমনটা করতে হবে। চিনের সরকার চাইছে শুধু নাবালকরাই নয়, যাতে সেদেশের ক্রীড়াবিদ, সেলেবরাও এই ট্যাটু বিরোধী অভিযানে যোগ দেয়, তার পদক্ষেপের পথে হাঁটতে।

বন্ধ করুন