বাড়ি > ঘরে বাইরে > রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতা আওড়ে PUBG ব্যানের বিরুদ্ধে বার্তা চিনের মুখপাত্রের
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতা আওড়ে PUBG ব্যানের বিরুদ্ধে বার্তা চিনের মুখপাত্রের

দুই দেশের সাংস্কৃতিক যোগের কথা ফের তুলে ধরা হয়েছে চিনের তরফ থেকে। 

বুধবারই ডিজিটাল স্ট্রাইক করে চিনের ১১৮টি অ্যাপ বন্ধ করে দিয়েছে ভারত। এর মধ্যে আছে অত্যন্ত জনপ্রিয় পাবজি। এর কড়া প্রতিবাদ করেছে চিন। একই সঙ্গে দুই দেশের সম্পর্কের গভীরতার কথা তুলে ধরা হয়েছে যোগ ও কবিগুরু রবীন্দ্রনাথের প্রসঙ্গ টেনে এনে। 

এদিন চিনের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র বলেন যে যোগের জনপ্রিয়তা বা রবীন্দ্র অনুরাগকে তারা আগ্রাসন হিসাবে দেখেন না। তাহলে জনপ্রিয় অ্যাপ বন্ধ করা হচ্ছে কেন, সেই প্রশ্ন করেন মুখপাত্র। 

বুধবার ভারত ১১৮টি অ্যাপ ব্যান করে এই অভিযোগে যে এরা লুকিয়ে ডেটা নেয় ইউজারদের থেকে যেটার থেকে ভারতের নিরাপত্তায় বড় ক্ষতি হতে পারে। এর বিরুদ্ধে বিবৃতি দিয়েছে চিনের বিদেশমন্ত্রক ও বাণিজ্যমন্ত্রক। এই সিদ্ধান্ত চিনের লগ্নিকারীদের স্বার্থের পরিপন্থী বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রকের মুখপাত্র। দ্রুত ভারতকে তাদের তথাকথিত ভুল শুধরে নিতে বলেন গাও ফেং। ভারতে চিনের হাইকমিশনের মুখপাত্র বলেন এই সিদ্ধান্ত বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার নিয়মকে লঙ্ঘন করে। 

অন্যদিকে বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র কিছুটা হলেও নরম ভাষায় আবেদন জানান এই ব্যান তুলে নেওয়ার। হুয়া চুনয়িং বলেন যে দারুন কিছু জনপ্রিয় অ্যাপ ব্যান করেছে ভারত। এতে ভারতীয় নাগরিকদের অধিকার ও স্বার্থ লঙ্ঘিত হয়েছে ও চিনের ব্যবসার অধিকার ও স্বার্থ বিঘ্নিত হয়েছে। ভারত যেটা করেছে সেটা কারো হিতে নয়, বলেই তিনি দাবি করেন। 

হুয়া বলেন যে দুই প্রাচীন সভ্যতা ভারত ও চিন অনবদ্য সংস্কৃতি সম্পন্ন। হাজার হাজার বছর ধরে সাংস্কৃতিক আদানপ্রদান চলছে। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতা চিনে খুব জনপ্রিয়। এরপর তাঁর কবিতার একটি লাইন উদ্ধৃত করে ভারতকে বার্তা দেন চিনের মুখপাত্র। We read the world wrong, and say that it deceives us- মাধ্যমে ভারত চিনকে ভুল বুঝছে, সেই বার্তাই বোধহয় দিতে চাইলেন চিনের মুখপাত্র। 

এছাড়াও চিনে যোগের জনপ্রিয়তার কথা বলেন হুয়া ও এই কথা বলেন যে এতে চিনের সংস্কৃতির ওপর আগ্রাসন আসছে, তেমন নয়। বিভিন্ন সংস্কৃতির মধ্যে আদানপ্রদান হলে বন্ধুত্ব বাড়বে বলে তিনি জানান। এদিন আমেরিকার ক্লিন নেটওয়ার্কে যোগ দিতে ভারতকে মানা করে চিন। 

 

 

বন্ধ করুন