বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > China Plane Crash: কেন ভেঙে পড়ল? চলছে খোঁজ, চিনা বিমানের মতোই গোঁত্তা খেয়ে পড়ল বোয়িংয়ের শেয়ার দর
চিনের জঙ্গলে মিলেছে বোয়িংয়ের বিমানের ধ্বংসাবশেষ। বিমানের ব্ল্যাক বক্স ও ককপিট ভয়েস রেকর্ডার উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।  (AP)

China Plane Crash: কেন ভেঙে পড়ল? চলছে খোঁজ, চিনা বিমানের মতোই গোঁত্তা খেয়ে পড়ল বোয়িংয়ের শেয়ার দর

  • চিনের জঙ্গলে মিলেছে বোয়িংয়ের বিমানের ধ্বংসাবশেষ। বিমানের ব্ল্যাক বক্স ও ককপিট ভয়েস রেকর্ডার উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

১১৭ জন যাত্রী এবং ৯ জন ক্রু সদস্যকে নিয়ে গতকালই এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনার কবলে পড়েছিল বোয়িং ৭৩৭ বিমান। এই দুর্ঘটনার পর থেকেই এর কারণের সন্ধান শুরু হয়ে গিয়েছে। চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এই দুর্ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। এদিকে ২৬ হাডার ফুট থেকে গোঁত্তা খেয়ে মাটিতে পড়া বিমানটির ধ্বংসাবশেষ মিলেছে জঙ্গলে। আর এরই মাঝে বোয়িংয়ের শেয়ার দরে বিশাল পতন হল এদিন।

নিউইয়র্ক স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেন শুরু হতেই বোয়িংয়ের শেয়ার দর গোঁত্তা খেয়ে নিচের দিকে নামতে শুরু করে এদিন। শেয়ার বাজারের লেনদেন শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই বোয়িংয়ের শেয়ার দর ৫.৬ শতাংশ নেমে যায়। আর এরই মাঝে চিনের জঙ্গলে মিলেছে বোয়িংয়ের বিমানের ধ্বংসাবশেষ। বিমানের ব্ল্যাক বক্স ও ককপিট ভয়েস রেকর্ডার উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। তা থেকে দুর্ঘটনার আসল কারণ জানা যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এরই মাঝে চিনে ৭৩৭ ম্যাক্স বিমান ডেলিভারি দেওয়ার কথা ছিল বোয়িংয়ের। তবে এই দুর্ঘটনার আবহে তা অনিশ্চয়তা দেখা দিলে শেয়ার দরে পতন ঘটে সংস্থার।

উল্লেখ্য, সোমবার দুপুরের দিকে চিনে ভেঙে পড়েছে চায়না ইস্টার্ন এয়ারলাইন্সের একটি বিমান। সেই বিমানে ১৩২ জন ছিলেন। বিমানের কেউই আর বেঁচে নেই। চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যমগুলির প্রতিবেদন অনুযায়ী, কুনমিং থেকে গুয়াংঝুতে যাচ্ছিল বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি। গুয়াঙ্গশি এলাকায় এলাকায় সেটি ২৬ হাজার ফুট নিচে ভেঙে পড়ে। দুর্ঘটনার কবলে পড়া বোয়িং ৭৩৭-৮০০ বিমানটি মাত্র ৬ বছর পুরোনো ছিল। সেই দুর্ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। এদিকে এই দুর্ঘটনার প্রাক্কালে ভারতে বোয়িংয়ের বিমানগুলির উপর নজরদারি শুরু হয়েছে।

 

বন্ধ করুন